ভিজিটর সংখ্যা

অনলাইনে ভ্যাট ও ট্যাক্স সেবা

অনলাইনে ভ্যাট ও ট্যাক্স সেবা
ট্যাক্সগাইড বাংলাদেশ ব্যবসায়ীদের সুবিদার্থে অনলাইনে ভ্যাট, ট্যাক্স ও কাস্টমস সংক্রান্ত সেবা চালু করেছে। এখন থেকে আপনারা দিনের ২৪ ঘন্টা সপ্তাহের ৭ দিন দেশের যে কোন স্থান থেকে ভ্যাট, ট্যাক্স ও কাস্টমস সংক্রান্ত সেবা পেতে পারেন। Email: ceo.taxguidebd@gmail.com, ceo@taxguidebd.com ; 01746440021, 01972300009

ই-বুক কালেকশন

প্রয়োজনীয় সব বাংলা 🕮 ই-বুক বা বই, 💻 সফটওয়্যার ও 🎬 টিটোরিয়াল কালেকশ সংগ্রহ করতে!

আপনারা সামান্য একটু সময় ব্যয় করে ,শুধু এক বার নিচের লিংকে ক্লিক করে এই কালেকশ গুলোর মধ্যে অবস্থিত বই ও সফটওয়্যার এর নাম সমূহের উপর চোখ বুলিয়ে 👓 👀 নিন।”তাহলেই বুঝে যবেন কেন এই ফাইল গুলো আপনার কালেকশনে রাখা দরকার! আপনার আজকের এই ব্যয়কৃত সামান্য সময় ভবিষ্যতে আপনার অনেক কষ্ট লাঘব করবে ও আপনার অনেকে সময় বাঁচিয়ে দিবে।

বিশ্বাস করুন আর নাই করুনঃ-“বিভিন্ন ক্যাটাগরির এই কালেকশ গুলোর মধ্যে দেওয়া বাংলা ও ইংলিশ বই, সফটওয়্যার ও টিউটোরিয়াল এর কালেকশন দেখে আপনি হতবাক হয়ে যাবেন !”

🎯বিস্তারিত 👀 জানতেঃ
এখানে 👆 ক্লিক
অথবা
এখানে👆ক্লিক করুন
অথবা
এখানে👆ক্লিক করুন

📲 মোবাইল থেকে বিস্তারিত
এখানে 👆 ক্লিক করুন

🎯সুন্দর ভাবে বুঝার জন্যঃ

📥 ডাউনলোড লিংকঃ

এখানে👆ক্লিক করুন

http://vk.com/doc229376396_437430568


📚🕮 eBook Page: এখানে👆ক্লিক
🎭eBooks Groups: এখানে👆ক্লিক
👓👀 Online Preview: এখানে👆ক্লিক

জনপ্রিয় পোস্টসমূহ

Search

লোড হচ্ছে...
Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Visit প্রয়োজনীয় বাংলা বইto get more interesting Computer and Educational Bangla Books

Gadget

এই সামগ্রীটি এখনও এনক্রিপ্ট করা সংযোগগুলির মাধ্যমে উপলব্ধ নয়।

📱মোবাইল দিয়ে পড়তে ও ডাউনলোড করতে যাদের সমস্যা হয়ঃ তারা নিচের লিংকে ক্লিক থেকে অ্যাপটা ডাউনলোড করে নেন... মোবাইলে বই পড়ার জন্য এটি একটি অনন্য অ্যাপ , একবার ইন্সটল করে দেখুন আশা এর সব ফিচার দেখে আপনি এই অ্যাপস এর ফ্যান হয়ে যাবেন । 📳মোবাইল স্ক্রিন ভার্সনে অর্থাৎ যে কোন সাইজের স্ক্রিনে অটোমেটিক এডজাস্ট হওয়া। (আপনাকে ডানে-বামে বা উপরে-নিচে মুভ করা লাগবে না) প্রয়োজনীয় সকল শিক্ষণীয় বাংলা বই 📚 ফ্রি তে পড়তে পারবেন , এই বইঘর Boighor এন্ড্রয়েড অ্যাপ খুব শিগ্রই সবার প্রিয় অ্যাপ হবে , কারন এতে আছে 🔖 বুকমার্ক মেনুঃ ক্লিক করে যে কোন অধ্যায়ে সরাসরি যেতে পারবেন, 🌙 নাইট মোড বা ভিউ, 🔍 বইয়ের 📑 মধ্যে যে কোন টেক্সট সার্চ করার সুবিধা, 📝 বইয়ের টেক্সটকে পছন্দমত হাইলাইট বা মার্ক , আন্ডারলাইন ✐ড্র করা যাবে (সো চিন্তা করে দেখুন এর চাইতে সহজ ও ইউজার ফ্রেন্ডলি কোন বাংলা বই পড়ার এন্ড্রয়েড অ্যাপ আছে কিনা!!! ) আর যে কোন লেখক ও পাবলিশারের একমাত্র নির্ভরযোগ্য অ্যাপ হবে , কারন আমাদের চেয়ে বেশি সিকুরিটি আর কেউ দিতে পারবে না ...ইনশাআল্লাহ
গুগল প্লে স্টোর গিয়ে " Boighor by chorui লিখে সার্চ দিন
এন্ড্রোয়েড অ্যাপ্লিকেশনে এখানের সব বই মোবাইল স্ক্রিনে পেতেঃ
এখানে👆ক্লিক করুন
https://play.google.com/store/apps/details?id=com.cgd.ebook.boighor

বুধবার, ২২ মার্চ, ২০১৭

postheadericon খুব সাম্প্রতিক (আপডেট) ঘটনার গুরুত্বপূর্ণ ৪০০টি প্রশ্নোত্তর ...বিসিএস , ব্যাংক জব ও ইউনিভার্সিটি ভর্তি পরীক্ষার জন্য ...



🎯 মোট উপজেলা -৪৯১টি , সর্বশেষ : কুমিল্লার লালমাই ।
🎯 মোট থানা -৬৪০টি , সর্বশেষ : নরসিংদির মাধবদী
🎯 ডিএমপি থানা -৪৯টি
🎯 মোট পৌরসভা -৩২৭টি , সর্বশেষ চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার দোহাজারি ।
🎯 মাথাপিছু আয়-১৪৬৫ মার্কিন ডলার ( সূত্র: বাংলাদেশ ব্যাংক)
🎯 রেমিট্যান্স-৭৮.১৮ বিলিয়ন টাকা ( ফেব্রুয়ারী -’১৭) ( সূত্র: বাংলাদেশ ব্যাংক ওয়েবসাইট)
🎯 রিজার্ভ ৩২.৫৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার
🎯 এ্যাডভোকেট আবদুল হামিদ বাংলাদেশের ২০তম প্রেসিডেন্ট
🎯 শেখ হাসিনা -বাংলাদেশের ১৪তম প্রধানমন্ত্রী
🎯 ড. শিরীন শারমীন চৌধুরী বাংলাদেশের > ১৩তম স্পিকার(নারী হিসেবে ১ম)
🎯 কে এম নুরুল হুদা ১২তম প্রধান নির্বাচন কমিশনার ।
🎯 ফজলে কবির ১১তম বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর
🎯 এস কে সিনহা-২১তম প্রধান বিচারপতি
🎯 পি.এস.সি চেয়ারম্যান-ড. মোহম্মদ সাদিক-১৪তম
🎯 জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান-কাজী রিয়াজুল হক -১১তম
🎯 দুদক এর চেয়ারম্যান   ইকবাল মাহমুদ -৫ম
🎯 এটর্নি জেনারেল -এ্যাডভোকেট মাহবুবে আলম-১৫ তম

🎯 ৩০ নভেম্বর ২০১৬ UNESCO বাংলাদেশের কোন বিষয়টিকে 'অধরা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় স্থান দেয় ? পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রা
🎯 বর্তমানে বাংলাদেশে কতটি 'অধরা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য' রয়েছে? ৩টি(বাউল সংগীত, জামদানি ও পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রা)
🎯 দেশের প্রথম ওষুধনীতি করা হয় কবে? ১৯৮২ সালে
🎯 বাংলাদেশে উৎপাদিত ওষুধ বিশ্বের কতটি দেশে রপ্তানি করা হয়? ১২২ টি দেশে
🎯 বাংলাদেশে WTO'র বাণিজ্য সহজীকরণ চুক্তি(TFA) কবে অনুমোদন করে? ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬
🎯 বাংলাদেশ কততম দেশ হিসেবে বাণিজ্য সহজীকরণ চুক্তি (TFA) অনুমোদন করে? ৯৪
🎯 স্বাধীনতার পর বাংলাদেশ ব্যাংক একবারই মাত্র একটি নোট বাতিল করে। নোটটি কত মূল্যমানের এবং কত? ১০০ টাকা মূল্যমানের ; ১৯৭৪
🎯 স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের প্রথম নারী শিল্পীর নাম কি? নমিতা ঘোষ
🎯 চীনের কাছ থেকে বাংলাদেশের নৌবাহিনীর জন্য আনা সাবমেরিন দুটির নাম কি? "বানৌজা নবযাত্রা"ও বানৌজা জয়যাত্রা
🎯 বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত মনোগত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য কতটি?-৫৭ টি
🎯 Revolution Square কোথায় অবস্থিত? হাভানা, কিউবা
🎯 ২০১৬ সালে আরাকান রাজ্যে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী পরিচালিত রোহিঙ্গা নির্মূল অভিযানের নাম কি? অপারেশন ক্লিন
মঙ্গলবার, ২১ মার্চ, ২০১৭

postheadericon হুমায়ূন আহমেদ স্যারের জনপ্রিয় ৪০০ টি চিরন্তন বাণী বা উক্তি;; জাস্ট একবার চোখ বুলিয়ে দেখুন...


বাংলা সাহিত্যের জননন্দিত লেখক হুমায়ূন আহমেদের লেখা পাঠকদের কাছে যেমন জনপ্রিয় তেমনি তার কিছু উক্তি আজও পাঠকদের মন কে জয় করে রেখেছে। হুমায়ূন আহমেদের জনপ্রিয়  উক্তিগুলো পাঠকদের উদ্দেশে তুলে ধরা হলো :
[ এই উক্তি গুলো তার বিভিন্ন বই থেকে সংগ্রহ করা ] 
🎯 অতি সাধারন যে মানুষ তার চরিত্রেও অবাক হয়ে লক্ষ করার মতো কিছু ব্যাপার থাকে।
🎯 অতিকাছের মানুষের অবহেলা সহ্য করার ক্ষমতা মানুষের নেই মানুষ বড় অভিমানি প্রাণী ||
🎯 অতিরিক্ত রূপবতীরা বোকা হয়, এটা জগতের স্বঃতসিদ্ধ নিয়ম।
🎯 অধিকাংশ মানুষ কল্পনায় সুন্দর, অথবা সুন্দর দুর থেকে। কাছে এলেই আকর্ষণ কমে যায়। মানুষই একই। কারো সম্পর্কে যত কম জানা যায়, সে তত ভাল মানুষ।
🎯 অধিকাংশ মানুষই আজকাল গুছিয়ে কথা বলতে পারে না। চিন্তা এলোমেলো থাকে বলে কথাবার্তাও থাকে এলোমেলো।
🎯 অন্ধকার বলে কিছু নেই, আলোর অনুপস্থিতিকে অন্ধকার বলে। তেমনি কষ্ট বলেও কিছু নেই, সুখের সাময়িক অনুপস্থিতিকে কষ্ট বলে।
🎯 অন্ধকারে একটি সুন্দরী মেয়েও যেমন অসুন্দরী মেয়েও তেমন। পার্থক্যটা হচ্ছে আলোতে।
🎯 অবিশ্বাসের কাজগুলো খুব বিশ্বাসীরাই করে।
🎯 অভাবী মানুষদের চোখ কেন জানি পশুদের মতো চকচক করে।
🎯 অল্প বয়সের ভালোবাসা অন্ধ গন্ডারের মত। শুধুই একদিকে যায়। যুক্তি দিয়ে, বুদ্ধি দিয়ে, আদর দিয়ে এই গন্ডারকে সামলানো যায় না।
🎯 অসম্ভব বুদ্ধিমান মানুষ সব সময় এই ছেলেমানুষীটা করে। তাদের বুদ্ধির ছটায় অন্যকে চমকে দিতে চায়।
🎯 অসুস্থ মানুষকে প্রকৃতি খুব প্রভাবিত করে। পরিবেশেরও রোগ নিরাময়ের ক্ষমতা আছে।
🎯 আইসক্রিম আর চুমু খাওয়ার কোন বয়স লাগে না।
🎯 আজকালকার ছেলেরা চা ছাড়া আর কিছু খেতে চায় না – অথচ গরমের মধ্যে তেতুলের সরবতের মত ভাল জিনিস আর কিচ্ছু নেই।
🎯 আবেগ লুকাতে হয় । অতি আবেগ মানুষকে সামনে এগুতে দেয় না ।
🎯 আমরা (বাংলাদেশের মানুষ) অতি দরিদ্র এই কথা সত্যি। দু’বেলা খেতে পারি না এও সত্যি। অভাবের কারণে জাল-জুয়াচুরি কেউ কেউ করে, এও সত্য- তবে সঙ্গে সঙ্গে এটাও সত্যি আমরা আমাদের আত্মাকে হারাইনি। আমরা দুঃখে-কষ্টে জীবন-যাপন করি এবং এর মধ্যেই আত্মাকে অনুসন্ধান করি।খাঁচার ভেতর যে অচিন পাখি আসা-যাওয়া করে সেই পাখিটাকে বোঝার চেষ্টা করি।
🎯 আমরা কাউকেই হারাতে চাই না, কিন্তু সবাইকেই হারাতে হয়।
🎯 আমরা জানি একদিন আমরা মরে যাব। এই জন্যেই পৃথিবীটাকে এত সুন্দর লাগে। যদি জানতাম আমাদের মৃত্যু নেই তাহলে পৃথিবীটা কখনোই এত সুন্দর লাগতো না।
🎯 আমরা পৃথিবীতে আসি একা,পৃথিবী থেকে ফেরত যাই একা , কিন্ত পৃথিবীতে ঘোরাফিরা করি অনেককে নিয়ে।
🎯 আমরা মানুষের জটিলতা দেখে অভ্যস্ত, সারল্যকে আমরা ভয় করি। কারো ভেতরে ঐ ব্যাপারটি দেখলে থমকে যাই, এবং আমাদের মনের একটি অংশ বলতে থাকে নিশ্চয়ই কোন একটা রহস্য আছে।
🎯 আমরা মুখে অনেক কথা বলি না, কিন্ত আমাদের শরীর বলে। মনের ভেতরের কথা শরীর প্রকাশ করে দেয়। আমাদের মন অনেক কিছু বলতে চায় না। কিন্ত শরীর বলে দেয়
🎯 আমরা যে জিনিস বুঝতে পারিনা তাকেই ভয় পাই।
🎯 আমরা শূন্য হতে এসেছি, আবার শূন্যে ফিরে যাব। দুই শূন্যের মাঝে আমরা বাস করি। ভয় বাস করে এই দুই শূন্যে।
🎯 আমরা স্বপ্ন পূজারী তাই সর্বদা স্বপ্ন গড়ি। একটা স্বপ্ন ভেঙ্গে গেলে আবার নতুন একটা স্বপ্ন গড়ি এভাবে চলতেই থাকে।
শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০১৭

postheadericon সালাতামামি ২০১৬ (এক নজরে ২০১৬ সালের আলোচিত ঘটনা ছবিসহ)

৩৬৫ দিনের একটি বছর যখন শেষ হয়ে আসে তখন প্রতিটি মানুষই তার নিজের দিকে একবার হলেও তাকায়, কিছুটা হলেও ব্যক্তিজীবনের হিসাব মেলাতে চেষ্টা করে এই সময়ের সাফল্য আর ব্যর্থতার তালিকা দেখে। কারো জন্যে সেই সাফল্যের তালিকা হয়তো বেশ বড় হয়, কারো কাছে ছেড়ে যাওয়া বছরটিতে হয়তো প্রত্যাশিত সাফল্য আসেনি-এমনটিই মনে হতে পারে। কিন্তু বিষয়টি যখন একটি রাষ্ট্রের জন্যে হয় তখন এর সালাতামামি করা মোটেও চারটেখানি কথা নয়। তারপরও বছর শেষে বেশ গুরুত্বের সঙ্গে গোটা বছরের মূল্যায়ন করার একটি রেওয়াজ সর্বত্র চলে আসছে।এ মুহূর্তে ২০১৬ সালের ৩৬৫ দিনের কথা স্মরণ করলে অসংখ্য ঘটনার কথা সবারই মনে পড়বে- যা বছরের মূল্যায়নে অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক বলে বিবেচিত হবে। সব ঘটনার হয়তো জায়গা এই লেখায় দেওয়া সম্ভব হবে না। তারপরও মোটা দাগে বছরের উল্লেখযোগ্য কিছু ঘটনার কথা আমরা স্মরণ করতে পারি এই ই-বুকে 
তাছাড়া এই ই-বুকে বুকমার্ক মেনু 🔖 ও হাইপার লিংক মেনু 📝👆 যুক্ত করা হয়েছে ফলে খুব সহজে যে কোন অধ্যায়ে এ ক্লিক করেই যেতে পারবেন স্ক্রল করা লাগবে না...এই বই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে অনলাইন লাইভ প্রিভিউ দেখে আসুন তারপর সিদ্ধান্ত নিন ডাউনলোড করবেন কিনা।

অনলাইনে পড়তে 🕮 বা লাইভ প্রিভিউ 👀 দেখতেঃ

🗊 সাইজঃ- ১০ এমবি

📝 পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ৫০

📥 ডাউনলোড 👆 লিংকঃ
➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖

postheadericon ২০১৬ সালে যেসকল গুণীজন হারালাম আমরা ...! দেখে নিন, ২০১৬-তে কাদেরকে হারালো বাংলাদেশ ও বিশ্ব।



কালের গর্ভে হারিয়ে গেল আরো একটি বছর। নানা দিক থেকেই ২০১৬ সালটি ছিল ঘটনাবহুল। এর পাশাপাশি আমরা হারিয়েছি দেশ-বিদেশের বহু বিশিষ্টজনকে। সেই বিবেচনায় ২০১৬ সালকে গুণীজন হারানোর বছর বলা যায়।
  

শেখ তৈয়বুর রহমান
একটানা ২০ বছর রাষ্ট্রীয় পতাকা বহনকারী খুলনা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট শেখ তৈয়বুর রহমান (৮২) মারা যান এ বছরের শুরুর দিনই। গত ১ জানুয়ারি খুলনার একটি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত বিএনপির রাজনীতির সঙ্গেই জড়িত ছিলেন তিনি।
মাহবুব হোসেন
অর্থনীতিবিদ মাহবুব হোসেন (৭১) মৃত্যুবরণ করে ৪ জানুয়ারি দিবাগত রাত পৌনে ৩টায়। যুক্তরাষ্ট্রের ক্লেভেল্যান্ড ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।
রিডো বাইপাস সার্জারি ও ভাল্ভ পরিবর্তনের জন্য প্রায় এক মাস আগে সেখানে ভর্তি হন তিনি। চিকিৎসাধীন অবস্থাতেই মারা যান দেশের কৃষি ও খাদ্যনিরাপত্তা বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা করে যাওয়া এই অর্থনীতিবিদ।
মৃত্যুর আগে মাহবুব হোসেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি ও সামাজিক বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর আগে তিনি ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালকের উপদেষ্টা, নির্বাহী পরিচালক, আন্তর্জাতিক ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ইরি) সামাজিক গবেষণা বিভাগের পরিচালক ও বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বি আইডিএস) মহাপরিচালকের দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি।
জেনারেল জে এফ আর জ্যাকব
একাত্তরে পাকিস্তানি বাহিনীকে আত্মসমর্পণে রাজি করিয়ে নিজ হাতে দলিলের খসড়া লিখিয়ে নেয়া বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু ভারতীয় জেনারেল জে এফ আর জ্যাকবকে হারিয়েছে আমরা এ বছর। গত ১৩ জানুয়ারি বুধবার সকালে দিল্লির একটি সামরিক হাসপাতালে মারা যান তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে গত ৩১ জানুয়ারি হাসপাতালে ভর্তি হন ভারতীয় সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত এই লেফটেন্যান্ট জেনারেল।
১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য সুপরিচিত জ্যাকব ১৯২৩ সালে জন্মগ্রহণ করেন। মেজর জেনারেল জ্যাকব মুক্তিযুদ্ধকালে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ইস্টার্ন কমান্ডের চিফ অব স্টাফ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ব্রিটিশ ভারতের বেঙ্গল প্রেসিডেন্সিতে জন্মগ্রহণকারী জ্যাকব ১৯ বছর বয়সে সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন এবং ১৯৭৮ সালে অবসরে যাওয়ার আগে দ্বিতীয় মহাযুদ্ধ ও ১৯৬৫ সালে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধেও অংশ নেন। অবসরে যাওয়ার আগে তিনি পশ্চিম ভারতীয় রাজ্য গোয়া ও উত্তর ভারতীয় রাজ্য পাঞ্জাবের রাজ্যপাল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
আলতাফ মাহমুদ
বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি আলতাফ মাহমুদ মৃত্যুবরণ করেন এ বছরের ২৪ জানুয়ারি রোববার। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে আলতাফ মাহমুদের বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।
আলতাফ মাহমুদ ১৯৫৪ সালে গলাচিপার ডাকুয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর আলতাফ মাহমুদ ১৯৬৮ সালে পয়গাম পত্রিকার মাধ্যমে সাংবাদিকতা শুরু করেন। স্বাধীনতার পর দৈনিক স্বদেশ, দৈনিক কিষাণ, সাপ্তাহিক খবর, দৈনিক খবরের প্রধান প্রতিবেদকসহ বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ দৈনিক ডেসটিনির নির্বাহী সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন তিনি।
আলতাফ মাহমুদ স্ত্রী, দুই মেয়ে এক ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
জেনারেল কে ভি কৃষ্ণা রাও
একাত্তরে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা ভারতের সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল কে ভি কৃষ্ণা রাও মৃত্যুবরণ করেন এ বছর।
গত ৩০ জানুয়ারি শনিবার হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর দিল্লির সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। জেনারেল কৃষ্ণা নাগাল্যান্ড ও মণিপুরে সন্ত্রাস দমনে ১৯৭০ থেকে ’৭২ সাল পর্যন্ত একটি মাউন্টেইন ডিভিশনের নেতৃত্বে ছিলেন। তার নেতৃত্বাধীন ব্রিগেড ১৯৭১ সালে বাঙালির মুক্তি সংগ্রামে অংশ নিয়ে বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল শত্রুমুক্ত করতে ভূমিকা রাখে। এই যুদ্ধে বীরত্বের জন্য ভারতীয় সেনাবাহিনী থেকে পদক পান তিনি।
কায়সুল হক
এ বছর আমরা কবি কায়সুল হককেও হারিয়েছি। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি শনিবার সকালে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।
কায়সুল হক বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। শুরুতে তাকে বক্ষব্যাধি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তার ক্যানসার ধরা পড়ে। পরে তাকে ক্যানসার হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। একটু সুস্থ হওয়ার পর কায়সুল হক বাসায় ফিরে আসেন। কিন্তু গত ১২ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে আবারও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১৪ ফেব্রুয়ারি তিনি মারা যান।
কবি কায়সুল হক ১৯৩৩ সালের ২৯ মার্চ অবিভক্ত বাংলার মালদহে মাতুলালয়ে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম দবিরউদ্দিন আহমদ ও মা জিন্নাতুননেসা। তার পৈতৃক নিবাস রংপুর। তার শৈশব, কৈশোর ও যৌবন কেটেছে রংপুরে। কর্মজীবন কাটে ঢাকায়। ১৯৫০ সালে দৈনিক আজাদ-এ তার প্রথম কবিতা ‘আজ’ প্রকাশিত হয়। পঞ্চাশের দশকের বিউটি বোর্ডিং সাহিত্যচক্রের অন্যতম সক্রিয় সদস্য ছিলেন তিনি।
তার প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে- শব্দের সাঁকো, রবীন্দ্রনাথের নিরুপম বাগান, আলোর দিকে যাত্রা, অনিন্দ্য চৈতন্য, অধুনা, সবার পত্রিকা, কালান্তর ও শৈলী। কবিতায় অবদানের জন্য তিনি বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার (২০০১), সা’দত আলি আখন্দ সাহিত্য পুরস্কার (২০১৫), ড. আসাদুজ্জামান সাহিত্য পুরস্কার (২০০০) লাভ করেন।
শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৬

postheadericon বাংলাদেশে প্রাপ্ত ফল সমূহের পরিচিতি, পুষ্টিগুণ, ঔষধিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা ও চাষাবাদ কৌশল এর দুইটি সম্পূর্ণ বাংলা বই



১) বাংলাদেশে প্রাপ্ত ফল সমূহের পুষ্টিগুণ, ঔষধিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা , 190 পৃষ্ঠার সম্পূর্ণ বাংলা বই .২) ফল পরিচিতি ও চাষাবাদ কৌশল - কৃষি মন্ত্রণালয় , ১১০  পৃষ্ঠার সম্পূর্ণ বাংলা বই
" খাদ্য পুষ্টি স্বাস্থ্য চান, ফল ফলাদি বেশি খান...যদি ডাক্তারের কাছে যেতে না চান তাহলে ফলের  পুষ্টিগুণ ও ঔষধিগুণ জানুন " ......!!!
ফল আমাদের কার না প্রিয়। আমাদের মধ্যে ফলবিমুখ, তেমন কাউকে খুঁজে পাওয়া সত্যিই কঠিন হবে। তবে যে যে ফলই খান না কেন, যে ফল তাঁর প্রিয়, সেই ফলের পরিচিতি ও গুনাবলি  সম্পর্কে আমাদের অনেকের অনভিজ্ঞতার শেষ নেই।
অথচ ফলের পুষ্টিগুণ ও ঔষধিগুণ সম্পর্কে ভালোভাবে জানলে ...  ছোট খাট কবিরাজি করতে পারবেন অর্থাৎ  বিভিন্ন রোগ  প্রতিরোধ সম্পর্কে সচেতন হতে পারবেন এবং উপযুক্ত ফল নিয়ম মেনে  খাওয়ালে  সাধারণ অসুখ দুর করতে পারবেন
আমাদের চারপাশে বিভিন্ন ধরনের  অনেক ফল রয়েছে।এর প্রায় সকলই মানুষের কল্যানে আল্লাহর সৃষ্টি।কিন্তু কোন ফলের কি গুন তা আমরা সবাই জানি না।প্রত্যকটি ফলের  কিছু না কিছু ঔষধী গুন রয়েছে। মোট কথা স্রেফ উপযুক্ত সময়ে উপযুক্ত ফল খেয়ে  আপনি ঘরোয়া উপায়ে সুস্থ থাকতে পারবেন এবং আপনি সহজে কোন রোগে আক্রন্ত ও হবেন না
🎯নোটঃ -নিজের সুবিধামতো সময়ে 🕮পড়তে অর্থাৎ প্রয়োজনীয় মূর্হুতে  👓খুঁজে পেতে 👉পোষ্টটি শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রাখুন.. না হলে পরে আবার 🔍 খুঁজতে হবে ..

Health Benefits & Medicinal Properties of BD Fruits..

খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি বই -
এই বইতে ৫০টি ফলের বিস্তারিত ব্যখ্যা ও ছবি ...
প্রতেকটি ফলের ----- চার্ট আকারে পুষ্টিগুণ বা উপাদান বিস্তারিত স্বাস্থ্য উপকারিতা...
এবং এর ঔষধিগুণ বা ভেষজগুন বা আয়ুর্বেদিকগুণ ও তৈরি প্রক্রিয়া ... এবং রূপচর্চায় এর ব্যবহার ও অন্য কাজে এর ব্যবহার

এই বইটি বাংলাদেশের বিভিন্ন ফল এর বর্ণনা, উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ নিয়ে সাজানো শিক্ষামূলক বই। পরিবার এর সবার সু স্বাস্থ্য টিপস ও সুন্দর জীবন এর লক্ষে আমাদের এই ছোট্ট প্রয়াস , এর মাধ্যমে আপনি আপনার পরিবার এর সকল সদস্য এর সুস্বাস্থ এর জন্য উপকারী অনেক টিপস পাবেন । ফল এ প্রচুর পরিমানে ভিটামিন, মিনারেলস,এন্টী-অক্সিডেন্ট এবং রয়েছে অনেক ঔষধী গুনাগুন।ফলের সুন্দর রঙ ও স্বাদের সাথে ইহার মধ্যে নিহিত কি অভাবনীয় পুষ্টি ও উপকারি গুন রয়েছে তা এই বই পড়লেই বুঝতে পারবেন ... (কম্পিউটার, ট্যাব ও স্মার্ট ফোন ভার্সন)

তাছাড়া এই ই-বুকে বুকমার্ক মেনু 🔖 হাইপার লিংক মেনু  📝👆 যুক্ত করা হয়েছে ফলে খুব সহজে যে কোন অধ্যায়ে ক্লিক করেই যেতে পারবেন স্ক্রল করা লাগবে না...এই বই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে অনলাইন লাইভ প্রিভিউ দেখে আসুন তারপর সিদ্ধান্ত নিন ডাউনলোড করবেন কিনা।

অনলাইনে পড়তে 🕮 বা লাইভ প্রিভিউ 👀 দেখতেঃ




🗊 সাইজঃ- ১৮   এমবি
📝 পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ  ১৯০
📥 ডাউনলোড 👆 লিংকঃ
রবিবার, ৬ নভেম্বর, ২০১৬

postheadericon বেষ্ট বাংলা ডিকশনারি ইবুক(১৬,০০০+ ইংলিশ ওয়ার্ড এর ১০ টি করে বাংলা ও ইংলিশ সমার্থক শব্দ /Synonyms ও ৫ টি করে উদাহরন) মাল্টি সার্চ সাপোর্ট

একাধিক বাংলা , ইংলিশ সমার্থক শব্দ ও উদাহরন সহ বেষ্ট বাংলা ডিকশনারি (ইউনিকোড টেক্সট ফরম্যাটে) [ ব্যাসিক ওয়ার্ড ১৬,০০০+ ইংলিশ সমার্থক শব্দ ১০০,০০০+] মোট পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৮৬৫ ;   সার্চ এর মাধ্যমে খুব সহজেই যে কোন ইংলিশ শব্দ খুঁজে বের করার অপশন রাখা হয়েছে।(কম্পিউটার, ট্যাব ও স্মার্ট ফোন ভার্সন)
🎯 স্পেশাল ফিচারঃ প্রতিটি ইংলিশ শব্দের মিনিমাম ১০ টি করে বাংলা ও ইংলিশ সমার্থক শব্দ(অর্থাৎ Synonyms)  ও  ৫ টি করে উদাহরন বা বাক্য ; স্পেশাল মাল্টি সার্চ সাপোর্ট ; ইংলিশ লেটার ক্রম অনুযায়ি সাজানো ও ক্যাটাগরি করা।
কোন শব্দের অর্থ জানা না থাকলে সেক্ষেত্রে মুহূর্তেই সেই শব্দের অর্থ খুঁজে বের করতে ডিকশনারির জুড়ি নেই। যারা লেখাপড়া করেন বা যাদের নিত্য নতুন শব্দের অর্থ শেখার শখ তাদের কাছে ডিকশনারি অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম।

এইটা বেস্ট কেনঃ
👍 বাজারের কোন ডিকশনারিতে এতো সমার্থক শব্দ ও বাক্য উদাহরন দেওয়া নাই  আর অ্যাপ ও সফটওয়্যার তো প্রশ্নই আসে না
👍যে কোন ইলেকট্রনিক ডিভাইসে সাপোর্ট করবে অর্থাৎ এন্ড্রোয়েড , আইওএস ও উইন্ডোজে এর জন্য আলাদা আলাদা ডিকশনারি সফটওয়্যার ইন্সটল করা লাগবে না .
👍 অ্যাপ বা সফটওয়্যার এ সার্চ করলে শুধু একটা রেজাল্ট দেখাবে আর পিডিএফ এ সার্চ করলে অনেক রেজাল্ট দেখাবে
👍 মোট কথাঃ এই ধরনের একটা ডিকশনারির আপনার ইংলিশ শিখার আগ্রহ অনেক বাড়িয়ে দিবে 
তাছাড়া এই ই-বুকে বুকমার্ক মেনু 🔖 ও হাইপার লিংক মেনু  📝👆 যুক্ত করা হয়েছে ফলে খুব সহজে যে কোন অধ্যায়ে এ ক্লিক করেই যেতে পারবেন স্ক্রল করা লাগবে না...

postheadericon 📙বুখারী শরীফের বাংলা অনুবাদ বই বা ই-বুক – 🎯 ইউনিকোড ✐ টেক্সট ফরম্যাটে, 📚 সম্পূর্ন খণ্ড একসাথে !!

📙 সহীহ্‌ আল বুখারী / বুখারী শরীফের বাংলা অনুবাদ বই বা ই-বুক - 🎯 ইউনিকোড ✐ টেক্সট ফরম্যাটে , 📚 সম্পূর্ন খণ্ড একসাথে !! (💻 কম্পিউটার, 📲 ট্যাব ও স্মার্ট ফোন ভার্সন ) বুকমার্ক ও হাইপার লিংক মেন্যু 👆 ক্যাটাগরি দিয়ে সাজানো , মোট 📝 পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৩৯০, সাইজঃ ২৩ এমবি , ক্লিয়ার টেক্সট ফন্টের বই (বোখারী শরীফ পড়ুন,ইসলামকে ভালো করে জানুন )
বর্তমানের ব্যস্ত সময়ের কঠিন যুগে, আপনাকে মহান আল্লাহ তায়লা সন্নিকটে যাওয়া এবং মহানবীর পথ ধরে হেটে যেতে পারার জন্য আমার এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা ... এই ইবুকে কোন রেফারেন্স যাচায় করার জন্য সার্চ অপশন যুক্ত করা হয়েছে জাস্ট হাদিস নম্বর লিখে সার্চ দিলেই হবে , এবং বিভাগ ও অধ্যায় যুক্ত করা হয়েছে ।

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম
মহান রব্বুল আলামিনের দয়ায় আজ আপনাদের সামনে নিয়ে আসলাম, হাদীস গ্রন্থ বোখারী শরীফ, মুসলমান মাত্রই জানেন যে মহান আল্লাহ পাকের কালাম পাক “কোরআন” এর পরেই এর অবস্থান। মহা গ্রন্থ পাক কোরআনকে বুঝতে হলে বোখারী শরীফ পড়া একান্তই দরকার, বলা যায় পাক কোরআনের ব্যাখ্যাই হাদীস গ্রন্থ বোখারী শরীফ। এ গ্রন্থটির মুল রচয়িতা ইমাম মুহাম্মদ ইবনে ইসমাইল বোখারী (রহঃ) বাংলা অনুবাদ হযরত মাওলানা শামসুল হক ও শায়খুল হাদীছ মাওলানা আজিজুল হক । এখান হতে মোট ১৩টি খন্ডে সম্পুর্ণ বোখারী শরীফটি আপনারা ডাউনলোড করতে পারবেন।

সহীহ বুখারী (আরবি: صحيح البخاري‎) একটি প্রসিদ্ধ হাদীস বিষয়ক গ্রন্থ। সুন্নী ইসলাম মতে, এটি কিতাবুস সিত্তা, অর্থাৎ হাদীস বিষয়ক প্রধান ছয়টি গ্রন্থের অন্তর্গত হাদিসের প্রধান গ্রন্থ। পারস্যের স্বনামধন্য মুসলিম চিন্তাবিদ ইমাম বুখারী ইসলামের নবী হযরত মুহাম্মাদ (সঃ)-এর বানীর এই গ্রন্থটি সংকলন করেছেন। এই গ্রন্থটিকে কোরানের পর সবচাইতে প্রামাণ্য গ্রন্থ হিসেবে ধরা হয়।

সহীহ্‌ আল বুখারী আমাদের সকলের প্রিয়নবী হযরত মুহাম্মদ(সাঃ) এর মুখ থেকে বর্নিত সুন্দর জীবন ব্যবস্থার মূল পাথেয়। যা আমাদের জীবনকে সুন্দর এবং বিশ্বাসযোগ্য করে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে আল-কুরআন এর পরবর্তী অধ্যায়।

ইমাম বুখারী স্বীয় শিক্ষক ইসহাক বিন রাহওয়াইহ থেকে এই গ্রন্থ রচনার প্রেরণা লাভ করেন।একদিন ইসহাক একটি এমন গ্রন্থের আশা প্রকাশ তরেন,যাতে লিপিবদ্ধ থাকবে শুধু সহিহ হাদীস। ছাত্রদের মাঝে ইমাম বুখারী তখন এই কঠিন কাজে অগ্রসর হন।২১৭ হিজরী সালে মাত্র ২৩ বছর বয়সে তিনি মক্কার হারাম শরীফে এই গ্রন্থের সংকলন শুরু করেন। দীর্ঘ ১৬ বছর পর ২৩৩ হিজরী সনে এর সংকলনের কাজ সমাপ্ত হয়।

🎯নোটঃ -নিজের সুবিধামতো সময়ে 🕮পড়তে অর্থাৎ প্রয়োজনীয় মূর্হুতে 👓খুঁজে পেতে 👉পোষ্টটি শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রাখুন.. না হলে পরে আবার 🔍 খুঁজতে হবে ...

তাছাড়া এই ই-বুকে বুকমার্ক মেনু 🔖 ও হাইপার লিংক মেনু 📝👆 যুক্ত করা হয়েছে ফলে খুব সহজে যে কোন অধ্যায়ে এ ক্লিক করেই যেতে পারবেন স্ক্রল করা লাগবে না...এই বই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে অনলাইন লাইভ প্রিভিউ দেখে আসুন তারপর সিদ্ধান্ত নিন ডাউনলোড করবেন কিনা।

অনলাইনে পড়তে 🕮 বা লাইভ প্রিভিউ 👀 দেখতেঃ
➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖➖




🗊 সাইজঃ- ২৩ এমবি (হাইলি কম্প্রেস করা )
📝 পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৩৯০
📥 ডাউনলোড 👆 লিংকঃ

প্রয়োজনীয় সব বাংলা 🕮ই-বুক

প্রয়োজনীয় সব বাংলা 🕮ই-বুক বা বই, 💻সফটওয়্যার ও 🎬টিটোরিয়াল কালেকশ সংগ্রহ করতে!
আপনারা সামান্য একটু সময় ব্যয় করে ,শুধু এক বার নিচের লিংকে ক্লিক করে এই কালেকশ গুলোর মধ্যে অবস্থিত বই ও সফটওয়্যার এর নাম সমূহের উপর চোখ বুলিয়ে 👓👀 নিন।”তাহলেই বুঝে যবেন কেন এই ফাইল গুলো আপনার কালেকশনে রাখা দরকার! আপনার আজকের এই ব্যয়কৃত সামান্য সময় ভবিষ্যতে আপনার অনেক কষ্ট লাঘব করবে ও আপনার অনেকে সময় বাঁচিয়ে দিবে।
বিশ্বাস করুন আর নাই করুনঃ-“বিভিন্ন ক্যাটাগরির এই কালেকশ গুলোর মধ্যে দেওয়া বাংলা ও ইংলিশ বই, সফটওয়্যার ও টিউটোরিয়াল এর কালেকশন দেখে আপনি হতবাক হয়ে যাবেন !”
আপনি যদি বর্তমানে কম্পিউটার ব্যবহার করেন ও ভবিষ্যতেও কম্পিউটার সাথে যুক্ত থাকবেন তাহলে এই ডিভিডি গুলো আপনার অবশ্যই আপনার কালেকশনে রাখা দরকার !
মোট কথা আপনাদের কম্পিউটারের বিভিন্ন সমস্যার চিরস্থায়ী সমাধান ও কম্পিউটারের জন্য প্রয়োজনীয় সব বই, সফটওয়্যার ও টিউটোরিয়াল এর সার্বিক সাপোর্ট দিতে আমার খুব কার্যকর একটা উদ্যোগ হচ্ছে এই ডিভিডি প্যাকেজ গুলো।আশা করি এই কালেকশন গুলো শিক্ষার্থীদের সকল জ্ঞানের চাহিদা পূরন করবে…!
আমার আসল উদ্দেশ্য হল, কম্পিউটার ও মোবাইল এইডেড লার্নিং ডিভিডি কার্যক্রম এর মাধ্যমে সফটওয়্যার, টিটোরিয়াল ও এইচডি কালার পিকচার নির্ভর ই-বু বা বইয়ের সহযোগিতায় শিক্ষাগ্রহন প্রক্রিয়াকে খুব সহজ ও আনন্দদায়ক করা।
এবং সকল স্টুডেন্ট ও টিচারকে কম্পিউটার ও মোবাইল প্রযুক্তির সম্পৃক্তকরণ এবং সকল শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের প্রযুক্তিবান্ধব করা এবং একটা বিষয় ক্লিয়ার করে বুঝিয়ে দেওয়া যে প্রযুক্তি শিক্ষাকে আনন্দদায়ক করে এবং জ্ঞান অর্জনের প্রতি আকর্ষণ বৃদ্ধি করে…
🎯 কালেকশ সম্পর্কে বিস্তারিত 👀জানতেঃ নিচের লিংকে 👆ক্লিক করুন
www.facebook.com/tanbir.ebooks/posts/777596339006593

এখানে👆 ক্লিক করুন

🎯 সুন্দর ভাবে বুঝার জন্য নিচের লিঙ্ক থেকে ই-বুক্টি ডাউনলোড করে নিন...
📥 ডাউনলোড 👆 লিংকঃ এখানে👆ক্লিক

আপডেট পেতে

আপডেট ই-বুক

Google+

Email পেতেঃ

মন্তব্য দিন

আমার সম্পর্কে !

আমার ফোটো
Tanbir Cox
                 Web site :

ফ্রী বাংলা ই-বুক ও ওয়েব সাইট লিঙ্ক
জিরো গ্রাভিটি | Techtunes | টেকটিউনস
ফেসবুক পেজঃ-- 

https://www.facebook.com/tanbir.cox

বেঁচে আমি থাকবোই আমার আপন ইচ্ছায়...,
অন্তত উত্তম এক কালের প্রতীক্ষায়.........
তা কারো গোলামী করে নয়...।
নিজের যোগ্যতায়...
+8801738359555

আমার সম্পূর্ণ প্রোফাইল দেখুন