ভিজিটর সংখ্যা

ডাউনলোড সমস্যা

🎯বিস্তারিত 👀 জানতেঃ
এখানে 👆 ক্লিক
অথবা
এখানে👆ক্লিক করুন
অথবা
এখানে👆ক্লিক করুন

🎯সুন্দর ভাবে বুঝার জন্যঃ

📥 ডাউনলোড লিংকঃ

এখানে👆ক্লিক করুন

http://vk.com/doc229376396_437430568


Tanbir Ahmad
eBook writer, Developer
& Digital Publisher
Founder and CEO,
📖 ebook.org.bd
👁️ facebook ID
🔖 LinkedIn
📓 Google+
🖄 tanbir.cox@gamil.com
📲 +88 01738359555
📞 Skype: tanbir.cox

ভ্যাট ও ট্যাক্স

ভ্যাট ও ট্যাক্স
ট্যাক্সগাইড বাংলাদেশ ব্যবসায়ীদের সুবিদার্থে অনলাইনে ভ্যাট, ট্যাক্স ও কাস্টমস সংক্রান্ত সেবা চালু করেছে। এখন থেকে আপনারা দিনের ২৪ ঘন্টা সপ্তাহের ৭ দিন দেশের যে কোন স্থান থেকে ভ্যাট, ট্যাক্স ও কাস্টমস সংক্রান্ত সেবা পেতে পারেন। Email: ceo.taxguidebd@gmail.com, ceo@taxguidebd.com ; 01746440021, 01972300009

জনপ্রিয় পোস্টসমূহ

T@NB!R ব্লগ সংরক্ষাণাগার

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Visit প্রয়োজনীয় বাংলা বইto get more interesting Computer and Educational Bangla Books

Gadget

এই সামগ্রীটি এখনও এনক্রিপ্ট করা সংযোগগুলির মাধ্যমে উপলব্ধ নয়।

📱মোবাইল দিয়ে পড়তে ও ডাউনলোড করতে যাদের সমস্যা হয়ঃ তারা নিচের লিংকে ক্লিক থেকে অ্যাপটা ডাউনলোড করে নেন... মোবাইলে বই পড়ার জন্য এটি একটি অনন্য অ্যাপ , একবার ইন্সটল করে দেখুন আশা এর সব ফিচার দেখে আপনি এই অ্যাপস এর ফ্যান হয়ে যাবেন । 📳মোবাইল স্ক্রিন ভার্সনে অর্থাৎ যে কোন সাইজের স্ক্রিনে অটোমেটিক এডজাস্ট হওয়া। (আপনাকে ডানে-বামে বা উপরে-নিচে মুভ করা লাগবে না) প্রয়োজনীয় সকল শিক্ষণীয় বাংলা বই 📚 ফ্রি তে পড়তে পারবেন , এই বইঘর Boighor এন্ড্রয়েড অ্যাপ খুব শিগ্রই সবার প্রিয় অ্যাপ হবে , কারন এতে আছে 🔖 বুকমার্ক মেনুঃ ক্লিক করে যে কোন অধ্যায়ে সরাসরি যেতে পারবেন, 🌙 নাইট মোড বা ভিউ, 🔍 বইয়ের 📑 মধ্যে যে কোন টেক্সট সার্চ করার সুবিধা, 📝 বইয়ের টেক্সটকে পছন্দমত হাইলাইট বা মার্ক , আন্ডারলাইন ✐ড্র করা যাবে (সো চিন্তা করে দেখুন এর চাইতে সহজ ও ইউজার ফ্রেন্ডলি কোন বাংলা বই পড়ার এন্ড্রয়েড অ্যাপ আছে কিনা!!! ) আর যে কোন লেখক ও পাবলিশারের একমাত্র নির্ভরযোগ্য অ্যাপ হবে , কারন আমাদের চেয়ে বেশি সিকুরিটি আর কেউ দিতে পারবে না ...ইনশাআল্লাহ
গুগল প্লে স্টোর গিয়ে " Boighor by chorui লিখে সার্চ দিন
এন্ড্রোয়েড অ্যাপ্লিকেশনে এখানের সব বই মোবাইল স্ক্রিনে পেতেঃ
এখানে👆ক্লিক করুন
https://play.google.com/store/apps/details?id=com.cgd.ebook.boighor

বুধবার, ১ জানুয়ারী, ২০১৪

postheadericon কিছু ভেষজ উদ্ভিদের ঔষধী গুন

আমাদের চারপাশে বিভিন্ন ধরনের উদ্ভিদ রয়েছে। এর প্রায় সকলই মানুষের কল্যানে আল্লাহর সৃষ্টি। কিন্তু কোন উদ্ভিদে কি গুন তা আমরা সবাই জানি না।
প্রত্যকটি ভেজষ উদ্ভিদেরই কিছু না কিছু ঔষধী গুন রয়েছে। বাংলাদেশে প্রায় পাঁচ হাজার উদ্ভিদ রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে সাড়ে পাঁচ শ ঔষধি উদ্ভিদ প্রজাতি বা ভেষজ। ঔষুধ শিল্পের কাঁচামাল হিসেবে ভেষজ উদ্ভিদের চাহিদা সারা বিশ্বের মতো আমাদের দেশে ক্রমেই বেড়ে চলেছে। ইউনানি, আয়ুর্বেদ ও হোমিওপ্যাথি ওষুধ উৎপাদনে কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহারের পাশাপাশি বিউটি পার্লার ও প্রসাধনীতে এখন প্রচুর ভেষজ উপাদান ব্যবহৃত হচ্ছে।
বাংলাদেশে স্বল্পসময়ে কম জমিতে অধিক হারে উৎপাদন করে অধিক মুনাফা অর্জন করা সম্ভব_এমন ঔষধি রয়েছে ২৫টির মতো। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে_পুদিনা, ঘৃতকুমারী, থানকুনি, অর্জুন, আমলকী, হরীতকী, কালমেঘ, নিম, বহেড়া, কালিজিরা, বসাক, উলটকমল, অশ্বগন্ধা, সর্পগন্ধা, তুলসী, মেথি, সোনাপাতা, যষ্টিমধু, বাবলা, শতমূলী, ইসবগুল, আদা, রসুন, হলুদ, পিঁয়াজ ইত্যাদি।
নীচে কিছু ভেজষ উদ্ভিদের ঔষধী গুনাগন তুলে ধরা হলো:
বাসক:
বাসক একটি ভারত উপমহাদেশীয় ভেষজ উদ্ভিদ। আর্দ্র, সমতলভূমিতে এটি বেশী জন্মে। লোকালয়ের কাছেই জন্মে বেশী। হালকা হলুদে রংয়ের ডালপালায়ক্ত ১ থেকে ২ মি. উঁচু গাছ, ঋতুভেদে সর্ব্বদাই প্রায় সবুজ থাকে। বল্লমাকারের পাতা বেশ বড়। ফুল ঘন, ছোট স্পাইকের ওপর ফোটে। স্পাইকের বৃন্ত পাতার চেয়ে ছোট। স্পাইকের ওপর পাতার আকারে উপপত্র থাকে যার গায়ে ঘন এবং মোটা শিরা থাকে। ফুলের দল (কোরোল্লা বা পত্রমূলাবর্ত) সাদা বর্ণ। তার ওপর বেগুনী দাগ থাকে। ফল সুপারি আকৃতির; বীজে ভর্তি।
প্রাচীনকাল থেকেই বাংলাদেশে রোগ নিরাময়ে গাছ-গাছালির পাতা, শেকড় বা ছাল ব্যবহার করা হতো। সেসব গাছই ছিল আমাদের পূর্বপুরম্নষদের জীবন সাথী। এখনও বাংলার গ্রামে অনেকেই রোগ নিরাময়ে গাছের রস, পাতা বা ছাল ব্যবহার করে থাকেন। সে রকম দুটি গুণী গাছের কথা এবার জানানো হলো :

বাসক
একটা সময় ছিল যখন বাঙালীর জীবনে হরীতকী, আমলকি, চিরতা, বাসকই ছিল বেঁচে থাকার রসদ। সুস্থতার চাবিকাঠি। আটপৌরে লোকের মুখে ঘুরে ঘুরে বাসকের নাম পরিণত হয়েছিল 'বসায়।' বাসক শব্দটির অর্থ সুগন্ধকারক, যদিও তার সঙ্গে এই উদ্ভিতটির কোন সাযুজ্য খুঁজে পাওয় যায় না। তবে দুর্গন্ধনাশক চর্মশোধক হিসেবে এর ব্যবহার সেকালে বাংলাদেশে ছিল। এখনও মনোহারি দোকানে শুকনো বাসক পাতা বিক্রি হয়। ছোটখাটো দৈহিক কষ্ট লাঘবের জন্যই এর ব্যবহার স্বীকৃত।

কি করে চিনবেন
বাসক মাঝারি মাপের গাছ। গাঢ় সবুজ রঙের উদ্ভিদ এবং চেহারায় তেমন কোন বিশেষত্ব নেই। ৫-৬ ফুট পর্যনত্ম সাধারণত লম্বা হয় এবং বাংলাদেশের সর্বত্রই মেলে। আষাঢ়-শ্রাবণ মাসে ছোট ছোট সাদা ফুল ফোটে। অন্য এক প্রকার বাসক গাছও আছে যাতে হলদেটে লাল রঙের ফুল ধরে।

কি করে গাছ বসাবেন
বাসক গাছ ঔষধি বাজারে বা নার্সারিতেও পেতে পারেন। তবে এ গাছ দুর্লভ নয়। পাতা ইত্যাদি চেনা থাকলে সহজেই নিজে সংগ্রহ করে নেয়া সম্ভব। গাছ বসাতে সাধারণ দোঅাঁশ মাটি ব্যবহার করম্নন। একটু বড় মাপের টব নিন। পরীৰা করে নেবেন যাতে টবের তলদেশের কেন্দ্রের ফুটোটি বেশ বড় মাপের হয়। তলার দিকে সামান্য খোলামকুচি বসিয়ে টবটি দোঅাঁশ মাটি, গোবর এবং পাতাসারের মিশ্রণ দিয়ে ভরাট করম্নন। গাছের ডাল কেটে যদি বর্ষাকালে পুঁতে দিতে পারেন তাহলে সহজেই তা থেকে চারাগাছ হয়ে যাবে।

postheadericon কিভাবে ব্যায়াম করবেন ... এনিমেশন ছবি সহ

জীবনকে সফল ও উপভোগ্য করতে এবং সর্বোপরি কর্মক্ষেত্রে সাফল্য পেতে ফিটনেস ধরে রাখতে হবে। শরীর-স্বাস্থ্য ভালো থাকলে মনও থাকে প্রফুল্ল। মনকে প্রফুল্ল রাখতে এবং কাজে দ্বিগুণ মনোযোগী হতে সকালের ব্যায়ামের বিকল্প নেই।আসলে একে ব্যায়াম না বলে বলতে পারেন  নিয়ম মেনে অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ নড়াচড়া... অর্থাৎ আমার সাধারণ যেই কাজ গুলো করি তা যদি নিয়ম মেনে করি তাহলে আমাদের এক্সট্রা ব্যায়াম করা লাগে না(অধিকাংশের ক্ষেত্রে ) ...
আমি জানি আমারা সবাই যার যার কাজে ব্যস্ত আলাদা করে ব্যায়াম করার মত সময় কারো হাতে নাই ... কিন্তু নিজেকে ফিট রাখার ইচ্ছা সবারই আছে ... কিন্তু এর জন্য এক্সট্রা পরিশ্রম করতে অধিকাংশ বন্ধুই রাজি না ...
তাই আপনাদের জন্য  বিভিন্ন মানবদরদী চিকিৎসক ও গবেষকের পরামর্শের ওপর ভিত্তি করে কিছু লেখার এ ক্ষুদ্র প্রয়াস... এই লেখা পড়ে আপনি কিছুটা হলেও ফিট থাকতে পারবেন ...
          উপযুক্ত ব্যায়াম ও খাদ্যাভ্যাস এবং প্রফুল্ল মনই হচ্ছে সুস্থ থাকার চাবিকাঠি। আসলে আমাদের জীবনে এত দুশ্চিন্তা বা টেনশন থাকে যে, আমরা হাসিখুশী থাকতে পারি না। অথচ কথায় আছে, ক্যান্সারে যত না কবর ভরেছে তার চেয়ে বেশী ভরেছে টেনশনে। সুতরাং ভালভাবে বাঁচতে চাইলে মনকে প্রফুল্ল রাখতে হবে। এ জন্য ভাল চিন্তা ও ভাল কাজের কোনো বিকল্প নেই। সেই সাথে নিজেকে জড়াতে হবে কোনো না কোনো সৃজনশীল কাজের সাথে।

 শারীরিক স্থূলতা - জটিলতা সমূহ


ওজনাধিক্য/ স্থূলতা নির্ণয় পদ্ধতি



স্থূলতা = কোমরের মাপ (সেমি)/ নিতম্বের মাপ(সেমি)
আদর্শ অনুপাতঃ
পুরুষদের ক্ষেত্রে < .৯
মহিলাদের ক্ষেত্রে < .৮
বিএমআই= ওজন (কেজি)/ উচ্চতা (মিটার ^২)

বিএমআই শ্রেনীভাগ


শ্রেনী বিএমআই (কেজি/মি২)
স্বাভাবিকের কম ১৮.৫ এর কম
স্বাভাবিক সীমা ১৮.৫-২২.৯
ওজনাধিক্য ২৩-২৪.৯
মোটা (শ্রেনী ১) ২৫-২৯.৯
মোটা (শ্রেনী ২) ) ৩০ বা ৩০-এর বেশি

শারীরিক স্থূলতা ও কোমরের মাপ


শ্রেনী স্বাস্থ্যকর ওজনাধিক্য স্থূলতা
পুরুষ <৯০ (সে:মি) ৯০-১০২ (সে:মি) > ১০২ (সে:মি)
মহিলা <৮০ (সে:মি) ৮০-৮৮ (সে:মি) > ৮৮ (সে:মি)

postheadericon আপনার কম্পিউটারের জন্য বিনা মূল্যে দরকারি সব সফটওয়্যার.....................।


 কম্পিউটার ব্যবহারকারীরা তাঁদের প্রয়োজনে অ্যাডোবি রিডার, অফিস, ফায়ারফক্স, ক্রোমের মতো সফটওয়্যারগুলো ইনস্টল করে রাখেন। কিন্তু বেশ কিছু অপরিচিত সফটওয়্যার আছে, যা কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের কাজে লাগতে পারে। প্রয়োজনীয় এই সফটওয়্যারগুলো আবার বিনা মূল্যেই পাওয়া যায়। ব্যবহারকারীদের কাজে লাগবে এমন কয়েকটি সফটওয়্যার নিয়ে এই প্রতিবেদন।
ডেক্সপট
ডেক্সপট হচ্ছে বিনা মূল্যের ভারচুয়াল ডেস্কটপ সফটওয়্যার। আপনার পিসিতে একাধিক ডেস্কটপ তৈরি করার প্রয়োজন পড়লে এই সফটওয়্যার কাজে লাগাতে পারবেন। এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে একাধিক ভারচুয়াল ডেস্কটপ তৈরি করে নেওয়া যায় এবং স্ক্রিনের কাজের পরিসর বাড়ানো যায়। প্রতিটি ভারচুয়াল ডেস্কটপ আলাদাভাবে কাজ করতে পারে এবং প্রতিটির আলাদা ওয়ালপেপার, রেজুলেশন ও আইকন সেট করা যায়। এক ডেস্কটপ থেকে আরেক ডেস্কটপে যাওয়ার সহজ সুবিধাও আছে। এতে কাস্টমাইজ করার সুবিধাও আছে। মাউস ও কিবোর্ড শর্টকার্ট দিয়ে প্রতিটি ডেস্কটপে যাওয়ার সুবিধাও রয়েছে।
ডাউনলোড করার লিংক http://download.cnet.com/Dexpot/3000-2346_4-10580780.html


রেইনমিটার
উইন্ডোজে অপারেটিং সিস্টেমে ডেস্কটপ কাস্টমাইজেশন করার সুবিধা সীমিত। যাঁরা ডেস্কটপ কাস্টমাইজ করার সুবিধা চান, তাঁদের জন্য রেইনমিটার প্রয়োজনীয় একটি সফটওয়্যার হতে পারে। পুরো ডেস্কটপকে এ সফটওয়্যারটি ‘স্কিন’ হিসেবে রূপান্তর করে যাতে ব্যবহারকারী তাঁর সুবিধামতো উইজেট, নোট, অ্যাপ্লিকেশন যুক্ত করতে পারে। ডেস্কটপকে নিজের মতো করে সাজাতে রেইনমিটার কাজে লাগানো যেতে পারে। রেইনমিটার কমিউনিটি থেকে অসংখ্য স্কিন ডাউনলোড করে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করা যাবে রেইনমিটারের ওয়েবসাইট ( http://rainmeter.net/ ) থেকে।

কিপাস
যাঁরা পাসওয়ার্ড মনে রাখতে পারেন না, তাঁদের জন্য প্রয়োজন এই সফটওয়্যারটি। নিরাপদে পাসওয়ার্ড সংরক্ষণের একটি গুরুত্বপূর্ণ সফটওয়্যার হচ্ছে কিপাস। আপনার গুরুত্বপূর্ণ সব পাসওয়ার্ড এই সফটওয়্যারটিতে সংরক্ষণ করতে পারবেন এবং একটি মাস্টারপাসওয়ার্ড দিয়ে তা সুরক্ষিত রাখা যাবে। একবার লক করে দিলে এই পাসওয়ার্ড ডাটাবেজ নিরাপদ এলগরিদমের মাধ্যমে এনক্রিপটেড হয়ে যায় বলে সহজে ক্র্যাক করা সম্ভব নয়। এ সফটওয়্যারটি কম্পিউটারে পাসওয়ার্ড সংরক্ষণ করে ইন্টারনেটের সঙ্গে এর সম্পর্ক নেই। কিপাস সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করা যাবে এর ওয়েবসাইট ( http://keepass.com  ) থেকে।

রেকুভা

মনের ভুলে গুরুত্বপূর্ণ ফাইল মুছে ফেললে আফসোসের শেষ থাকে না। ক্যামেরার মেমোরি কার্ড, ইউএসবি ড্রাইভ, কম্পিউটার রিসাইকেল বিন কিংবা এমপিথ্রি প্লেয়ার থেকে মুছে যাওয়া গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উদ্ধারে রেকুভা সফটওয়্যারটিকে কাজে লাগানো যেতে পারে। এ সফটওয়্যারটি যদিও সব ফাইল ফেরত আনতে পারে না, তার পরও প্রয়োজনীয় অনেক ফাইল পুনরুদ্ধারে এ সফটওয়্যারটি কাজে দিতে পারে। রেকুভা ডাউনলোড করা যাবে এর নির্মাতা পিরিফর্মের ( www.piriform.com/recuva  ) ওয়েবসাইট থেকে।

রিভো আনইস্টলার
আপনার কম্পিউটারে কোনো ফাইল আনইনস্টল করার পরও কিছু ফাইল থেকে যেতে পারে। এর কারণে কম্পিউটারের গতিও কম হয়ে যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে রিভো আনইনস্টলার সফটওয়্যারটি কাজে দেবে। এই সফটওয়্যার ইনস্টল করা হলে আনইনস্টল করা ফাইল স্ক্যান করে রিভো এবং কোনো ফাইল যদি আনস্টল করার পরও থেকে যায়, তা দূর করে এবং অন্য কোনো সমস্যা থাকলে তা দেখাতে পারে। এ সফটওয়্যারটি এক মাস বিনা মূল্যে ব্যবহার করা যাবে। ডাউনলোড করার লিংক ( www.revouninstaller.com  )

৭-জিপ
যাঁরা জিপ ফাইল নিয়মিত ব্যবহার করেন, তাঁদের উইনজিপের চেয়ে আরও শক্তিশালী সফটওয়্যার দরকার হতে পারে। ফাইল আর্কাইভের সফটওয়্যার হিসেবে ৭-জিপ কাজে লাগাতে পারবেন। বিনা মূল্যের ওপেনসোর্স ৭-জিপ সফটওয়্যারটি সব ফরম্যাটের জিপ ফাইল তৈরি ও খোলার জন্য কাজে লাগানো যায়। ডাউনলোড করার জন্য যেতে পারেন ( www.7-zip.org  ) ৭-জিপ ওয়েবসাইটটিতে।


অফিস প্যাকেজ
অফিস প্যাকেজ সফটওয়্যার হিসেবে মাইক্রোসফটের অফিস বিশ্বব্যাপী সর্বাধিক জনপ্রিয়। তবে মাইক্রোসফট অফিসের মতোই সব ধরনের সুবিধা নিয়ে ওপেন সোর্সভিত্তিক অফিস অ্যাপ্লিকেশন 'ওপেন অফিস'। ওয়ার্ড প্রসেসিংয়ের পাশাপাশি অফিস অ্যাপ্লিকেশনটিতে মাধ্যমে স্প্রেডশিট, প্রেজন্টেশন, গ্রাফিক্স এবং ডাটাবেজের প্রয়োজনীয় অ্যাপ্লিকেশনও রয়েছে। বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন ভাষায় এর সংস্করণ রয়েছে। প্রচলিত মাইক্রোসফট অফিস ব্যবহারে যারা অভ্যস্ত, তারা খুব সহজেই ওপেন অফিস ব্যবহার করতে পারবেন। ওপেন অফিসের বড় একটি সুবিধা হচ্ছে এর দ্বারা আন্তর্জাতিক ওপেন স্ট্যান্ডার্ড ফরম্যাটে ডাটা সংরক্ষণ করা যায়, যা অন্যান্য সমমানের সফটওয়্যারেও ব্যবহার করা যায়। আবার এখান থেকেই মাইক্রোসফট অফিসের ফরম্যাটে ফাইল সংরক্ষণ করা যায়। সম্পূর্ণ বিনামূল্যের এই অফিস প্যাকেজটি ডাউনলোড করতে ভিজিট করুন
 www.openoffice.org
ওপেন অফিসের পাশাপাশি শুধুমাত্র ওয়ার্ড প্রসেসিংয়ের জন্য আরেকটি সফটওয়্যার হচ্ছে অ্যাবিওয়ার্ড। ওয়ার্ড প্রসেসিংয়ের সব ধরনের কাজ করা যায় এর মাধ্যমে। অ্যাবিকোলাব ডটনেট ওয়েব সার্ভিসের সাথে সংযুক্ত এই সফটওয়্যারের অনলাইন সংস্করণে একসাথে একাধিক ব্যক্তি একটি ফাইলে কাজ করতে পারেন। আর অনলাইনে এর ডক্যুমেন্ট সংরক্ষণ করা যায় এবং ডক্যুমেন্ট শেয়ার করা যায়। এটি ডাউনলোড করতে ভিজিট করুন www.abisource.com

postheadericon বিভিন্ন শাস্রের ১৫০ জনকের নাম ...বিষয়ভিত্তিক ক্যাটাগরি অনুযায়ি

বাংলা সাহিত্য

বাংলা উপন্যাস বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
বাংলা সনেট মাইকেল মধূ সূদন দত্ত
আধুনিক বাংলা নাটক - মাইকেল মধূ সূদন দত্ত
বাংলা ছোট গল্প রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
গদ্য ছন্দ - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
মুক্ত ছন্দ কাজী নজরুল ইসলাম
আধুনিক বাংলা কবিতা জীবনান্দ দাশ
চলিত রীতিতে গদ্যের জনক প্রমথ চৌধুরী 


ইংরেজি উপন্যাস হেনরি ফিল্ডিং
ইংরেজি প্রবন্ধ ও গদ্য ফ্রান্সিস বেকন
ইংরেজি রূপকথা হ্যান্স ক্রিস্টিয়ান অ্যান্ডারসন
ইংরেজি ট্রাজেডি ক্রিস্টোফার মারলো
ইংরেজি সনেট স্যার থমাস ওয়াট
আধুনিক ইংরেজি কবিতা জিওফ্রে চসার
আধুনিক ইংরেজি সাহিত্য জর্জ বার্নাডশ 

বিশ্ব সাহিত্যসংস্কৃত


সনেট পেত্রাক
সায়েন্স ফিকশন মেরি শ্যালি
যাত্রা ক্লাওডিও মন্টে ভারডি
রুশ সাহিত্য ম্যক্সিম গোরকি
চলচিত্র এডওয়ার্ড মিউব্রিজ ।
বাংলাদেশ চলচিত্র আব্দুল জব্বার খান
আধুনিক নৃত্য ইসাডেরা
পশ্চিমা সঙ্গীত জোহান সেবাস্তেন বস
উপমহাদেশে সুরসঙ্গীত ওস্তাদ আলাউদ্দিন খান
রেনেসীয় চিত্রকলা জিওট্টো
আধুনিক কার্টুন উইলিয়াম হোগারথ
আধুনিক সার্কাস ফিলিপ অ্যাস্টলে


সংখ্যাতত্ত্ব  - পিথাগোরাস
গণনা চার্লস ব্যাবেজ
জ্যামিতি ইউক্লিড
বীজ গণিত ও অ্যালগারিদম আল-খাওয়ারিজম
ত্রিকোণমিতি হিপ্পার চাস
স্থিতিবিদ্যা আর্কিমিডিস
গতিবিদ্যা গ্যালিলিও

postheadericon প্রেম এবং ভালোবাসা সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় পরামর্শ , টিপস ও উক্তি (৩০০টি) নিয়ে …১২০পৃষ্ঠার সম্পূর্ণ বাংলা ই-বুক (pdf বই) + বিখ্যাত মনিষীদের ৫০ টি প্রেমের উক্তি বা বানীঃ

আপনাদের জন্য যে স্পেশাল বাংলা ই-বুক শেয়ার করছি তার নাম  " Important love tips, advice & quotes"
বইটির পৃষ্ঠা সংখ্যা ১২০... ইউনিকোড টেক্সট এ লিখা ফলে মোবাইল ও কম্পিউটারে কোন প্রকার ঝামিলা ছাড়াই পরতে পারবেন

কেন এই ই-বুক ডাউনলোড করবেনঃ

✬ প্রেম-ভালোবাসা সম্পর্কিত “হুমায়ূন আহমেদ” স্যারের বিখ্যাত ৬০ টি উক্তি
✬ ভালোবাসা সম্পর্কে বিখ্যাত মনিষীদের বা গুণীজনদের চির সত্য ১৫০ টি উক্তি বা বানীঃ
✬ ভালোবাসা সম্পর্কে আমার প্রিয় ১০০ টি উক্তি
✬ প্রেম ও ভালোবাসা সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথা যা আপনাকে সত্যিকারে ভালোবাসা কি তা বুঝতে সহায়তা করবে
✬ প্রেম-ভালোবাসা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সব পরামর্শ ও টিপস
✬ প্রেম ভালবাসা বিভিন্ন সমস্যা ও এর সমাধান সম্পর্কিত ১০০ টি গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল যা বিভিন্ন দৈনিক প্রত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছিল ...
✬ মোট কথা ... এই ই-বুক এর বিভিন্ন টিপস ও পরামর্শ ফলো করলে আপনার লাইফে আর কোন জটিলতা থাকবে না ... জাস্ট একবার চোখ বুলিয়ে দেখুন
একটা কথা মনে রাখবেন ...।একমাত্র ভালোবাসা দিয়েই পৃথিবীর সবকিছু জয় করা সম্ভব। ভালোবাসা দিয়ে হয় না এমন কোন কাজ পৃথিবীতে নেই বললেই চলে।
কারন পবিত্র ভালোবাসার মধ্যে জীবনের মহত্ত্ব লুকিয়ে থাকে ,এর দ্বারা জীবন চলার পথগুলো আলোকিত হয়, এতে আপনি জীবনের সফলতা খুঁজে পাবেন.........
এই ই-বুকের সুবিধাঃ
-------------------------
ক্যাটগরী ভিত্তিক হওয়ায় সহজেই পড়তে পারবেন ও বুঝতে পারবেন। তাছাড়া এই বইতে বুকমার্ক মেনু ও হাইপারলিঙ্ক মেনু যুক্ত আছে আপনাকে কোন অধ্যায়ে যেতে মাউসের চাকা ঘুরানো লাগবে জাস্ট ওই অধ্যায়ের নামের উপর ক্লিক করলেই হবে ...।
এই ই-বুক সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে ...
আপনার নিজ চোখে অনলাইন লাইভ ভিউ দেখে আসুন। তাহলেই সব বুঝতে পারবেন। তারপর সিদ্বান্ত নিন আপনার মেগাবাইট খরচ করে ডাউনলোড করবেন কিনা ... !!!
অবশ্য এই বইয়ের মেগাবাইট খুব একটা বেশি না ...

এই লিংক থেকে আপনি চাইলে বই ডাউনলোড ও করতে পারবেন ...উপরের বারে save অপশনে ক্লিক করে... জাস্ট ফেসবুক দিয়ে লগইন করুন দেখবেন ডাউনলোড লিংক শো করছে
ডাউনলোড লিংকঃ
--------------------

postheadericon বাংলাদেশের ৬৪ জেলার ইতিহাস...

জেনে নিন ৬৪ জেলার ইতিহাস

http://i.imgur.com/LYJzdit.jpg

ক। বরিশাল বিভাগঃ-
বরিশাল বিভাগ প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৯৩ সালে। বরিশাল, বরগুনা, ঝালকাঠী, পটুয়াখালি, পিরোজপুর ও ভোলা এই ৬ জেলা নিয়ে বরিশাল বিভাগ গঠিত হয়। অবশেষে ২০০০ সালে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠিত হয়।
১. বরগুনা জেলাঃ-
উত্তরাঞ্চলের কাঠ ব্যবসায়ীরা এ অঞ্চলে কাঠ নিতে এস খরস্রোতা খাকদোন নদী অতিক্রম করতে গিয়ে অনুকুল প্রবাহ বা বড় গোনের জন্য এখানে অপেক্ষা করত বলে এ স্থানের নাম হয় বড় গোনা।কারো মতে আবার স্রোতের বিপরীতে গুন (দড়ি) টেনে নৌকা অতিক্রম করতে হতো বলে এ স্থানের নাম বরগুনা।
২. বরিশাল জেলাঃ-
এক কিংবদন্তি থেকে জানা যায় যে, পূর্বে এখানে খুব বড় বড় শাল গাছ জন্মাতো, আর এই বড় শাল গাছের কারণে (বড়+শাল) বরিশাল নামের উৎপত্তি।
৩. ভোলা জেলাঃ-
বুড়ো এক মাঝি খেয়া নৌকার সাহায্যে লোকজন পারাপার করতো। তাঁর নাম ছিল ভোলা গাজী পাটনী। বর্তমানে যোগীরঘোলের কাছেই তাঁর আস্তানা ছিল। এই ভোলা গাজীর নামানুসারেই এক সময় স্থানটির নাম দেয়া হয় ভোলা।
৪. ঝালকাঠি জেলাঃ-
মধ্যযুগ-পরবর্তী সময়ে সন্ধ্যা, সুগন্ধা, ধানসিঁড়ি আর বিষখালী নদীর তীরবর্তী এলাকায় জেলেরা বসতি স্থাপন করে। এর প্রাচীন নাম ছিল ‘মহারাজগঞ্জ’.মহারাজগঞ্জের ভূ-স্বামী শ্রী কৈলাশ চন্দ্র জমিদারি বৈঠক সম্পাদন করতেন এবং পরবর্তীতে তিনি এ স্থানটিতে এক গঞ্জ বা বাজার নির্মাণ করেন। এ গঞ্জে জেলেরা জালের কাঠি বিক্রি করত। এ জালের কাঠি থেকে পর্যায়ক্রমে ঝালকাঠি নামকরণ করা হয় বলে ধারণা করা হয়।
৫. পটুয়াখালী জেলাঃ-
পটুয়াখালী চন্দ্রদ্বীপ রাজ্যের অন্তর্ভক্ত ছিল। কথিত আছে, এই “নটুয়ার খাল” খাল থেকে পরবর্তীতে এ এলাকার নামকরণ হয় পটুয়াখালী।
৬. পিরোজপুর জেলাঃ-
“ফিরোজ শাহের আমল থেকে ভাটির দেশের ফিরোজপুর,
বেনিয়া চক্রের ছোয়াচ লেগে পাল্টে হলো পিরোজপুর”
উপরোক্ত কথন থেকে পিরোজপুর নামকরণের একটা সূত্র পাওয়া যায়।  কালের বিবর্তনে ফিরোজপুরের নাম হয় ‘পিরোজপুর’।

postheadericon গুগলে যে কোন তথ্য খোঁজার জন্য চমৎকার সকল কৌশল ও টিপস..

এই কৌশলগুলি ব্যবহার করে আপনার মূল্যবান সময় বাঁচাতেপারবেন। তথ্য খুঁজতে আর পেইজের পর পেইজ দেখা লাগবে না ... জাস্ট নিচের নিয়ম মেনে সার্চদিন দেখবেন সবকিছু কত সহজে পেয়ে গেছেন ... একবার দেখুন সার্চ করা ছাড়াও আর কি কি করাযায় …।✬✬ এই পোস্ট অবশ্যই শেয়ার করে আপনার ফেইসবুক টাইমলাইনে সেইভ রাখুন অথবাবুকমার্ক করে রাখুন…এবং মোবাইলে পেইজ সেইভ করে রাখুন .. কারন এই টিপসও কৌশল গুলো আপনার লাইফে অবশ্যই কাজে লাগবে ... সম্পূর্ণ পোস্ট দেখলেই তা বুঝতে পারবেন 
তথ্য খোঁজার জন্য সবচেয়ে বেশি যে ইঞ্জিনটি ব্যবহৃত হয় সেটা হচ্ছে গুগল। অনেকে এটি কেশুধুমাত্র তাদের ব্রাউজার এর ডিফালট সার্চ ইঞ্জিন হিসেবেই ব্যাবহার করে না ,তাদের হোমপেজহিসেবেও ব্যাবহার করে । গুগলের এই সফলতার পেছনে রয়েছে কিছু ভাল কারন । গুগল শুধু একটিসার্চ ইঞ্জিনই নয়, একটি স্মার্ট সার্চ ইঞ্জিন ।এটি সব বর্তমানকেই তালিকা করে না বরংআর বেশি কিছু করে ।

বিশ্বের সবচেয়ে সমৃদ্ধসার্চ ইঞ্জিন হিসেবে গুগল সবার নিকট পরিচিত। গুগলের এই সার্চ ইঞ্জিনের আরও বহুবিধ ব্যবহাররয়েছে। যেগুলো আমাদের অনেকের জানা আবার অনেকের অজানা। শব্দের অর্থ, সময়, তারিখ, কারেন্সিকনভার্টার, ক্যালকুলেটরসহ আরো কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য পেতে সহজ ও মজার কিছু ফিচার যোগকরেছে এ সার্চ ইঞ্জিন। ফলে কিছু টিপস জানা থাকলেই গুগল ইঞ্জিনকে আরো সহজ ও প্রয়োজনীয়টুলসে পরিণত করা যায়। আসুন এই বিষয়গুলো জেনে নিই। গুগলের মোটামুটি সকল কৌশল তুলে ধরারচেষ্টা করা হলো-


অসাধারণ কিছু সার্চ টিপসঃ


নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট এ নির্দিষ্টশব্দ খোঁজাঃ
-------------------------------------------- 
✬কোন একটি নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট এ নির্দিষ্টশব্দ বা ওই শব্দের কন্টেন্ট খুজতে প্রথমে আপনি যেই শব্দটি খুজছেন সেইটা লিখুন তারপরsite: লিখে যেই সাইটটি থেকে খুজে বের করতে চান সেই সাইটের নাম  লিখুন।
যেমন : আপনি Computerpdf শব্দটি ও এর কনটেন্ট tanbircox.blogspot.com তে খুজতে চাইলে গুগলে লিখুন " যেমনঃ Computerpdf site:tanbircox.blogspot.com "

আমার পেইজে কোন পোস্ট বই খোঁজার জন্য
……কাঙ্ক্ষিত শব্দ বা  নাম tanbir.ebooks
যেমনঃ উক্তি tanbir.ebooks

যেভাবে অডিও ফাইল খুজবেন–
---------------------------------
আপনি যদি একটি অডিও ফাইলখুঁজে পেতে চান, তবে সহজ এই কোড ব্যবহার করুন।
   intitle:”indexof” mp3 “Your File name”
সাধারনতঃ Your Filename.mp3
উদাহরণ:    ধরুন আপনি মাইকেল জ্যাকসনের “beat it” গানটি mp3 ফরমেটে ডাউনলোড করতে চান। তবে সার্চ বক্সেএই কোডটি লিখুন
intitle:”index of” mp3 “beat it”
আপনি যদি ভিন্ন ফরমেটেগানটি ডাউনলোড করতে চান, তবে mp3 এর স্থানে ফরম্যাটের নাম লিখুন। যেমন wma, wav,ACC ইত্যাদি।

যেভাবে সফটওয়্যার খুজবেন–
------------------------
আপনি যদি সফটওয়্যার ডাউনলোডকরতে চান, তবে এই অনুসন্ধান ট্রিক্সটি ব্যবহার করুন।
intitle:”index of” exe “Your Application name”

উদাহরণ:    ধরুন আপনি 7zip সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করতে চান।তবে সার্চ বক্সে এই কোডটি লিখুন-  
intitle:”index of” exe “7zip”

যেভাবে ডকুমেন্ট  খুজবেন

------------------------
তবে সার্চ বক্সে এই কোডটিলিখুন-  
intitle:”index of” doc “bangla”

যেভাবে ই-বুক খুজবেন –
------------------------
আপনি যদি ই-বুক খুঁজে পেতেচান, তবে সহজ এই সার্চ কৌশলটি ব্যবহার করুন।
intitle:”index of” +(“/ebooks”| “/book”) +(chm|pdf|zip) +”Your book name”

উদাহরণ:   ধরুন আপনি o’reillyই-বুকটি ডাউনলোড করতে চান। তবে গুগল অনুসন্ধান বক্সে লিখুন 
intitle:”index of”+(“/ebooks”| “/book”) +(chm|pdf|zip) +”o’reilly”
www.facebook.com/tanbir.cox



-------------------------------------------
গুগোলের সার্ভিস সমূহঃ
-------------------------------------------
আপনার সকল সার্চ এর হিস্টরি দেখতে চাইলে
https://history.google.com/history/lookup?


বই এর জন্য
http://books.google.com/books?hl=en


ইমেইজ সার্চ এর জন্য http://images.google.com/

যে কোন অনুবাদের জন্য

http://translate.google.com

বাংলা অনুবাদ করার জন্য
https://translate.google.com/?hl=auto/bn/

ওয়েব সাইট অনুবাদ করারজন্য http://translate.google.com/manager/website/?hl=en

আমার যে কোন পোস্টের বাবইয়ের আপডেট পেতে https://plus.google.com/+tanbircox

আপনার নিজস্ব ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করতে http://www.blogger.com/start?hl=en

http://video.google.com

ম্যাপ দেখার জন্য
http://maps.google.com

গুগল আর্থ
http://www.google.com/intl/en/earth/

যে কোন কিছুর ব্যাকাপ রাখারজন্য
http://www.google.com.bd/drive/

এমএস ওয়ার্ড  মত কাজ করতে
http://docs.google.com/document

এমএস এক্সেল মত কাজ করতে
http://docs.google.com/spreadsheets

পাওয়ার পয়েন্টের মত কাজ করতে
http://docs.google.com/presentation

http://docs.google.com/drawings

http://sites.google.com/

http://www.google.com/calendar/


www.facebook.com/tanbir.cox

 গুগল সার্চ এর ক্ষেত্রে যা জানা খুব প্রয়োজন
------------------------------------------------
✬গুগল কেস সেনসিটিভ নয়। অথ্যাৎgoogle, Google, GoOgle ইত্যাদি একই ধরনের ফলাফল দিবে।
✬গুগল সাধারণত what, how, where,is, of ইত্যাদি শব্দ এবং যেকোন সিঙ্গেল character ইগনর (অগ্রাহ্য) করে। কিন্তু আপনিপ্রয়োজনে এসব শব্দ/অক্ষর ব্যবহার করতে পারেন, তবে সেজন্য সে শব্দ বা অরের আগে + চিহ্নব্যবহার করতে হবে। যেমন, +what +is capital of Bangladesh।
মনে রাখবেন, + চিহ্নেরআগে অবশ্যই একটি স্পেস থাকতে হবে এবং পরে কোন স্পেস রাখা যাবে না।
✬Phrase search এর জন্য quotationmark ব্যবহার করুন।
 যেমন- “river of Bangladesh” phrase দিয়ে সার্চ করলে “river of Bangladesh” হুবহু রয়েছে গুগল শুধুমাত্র সেইসব রেজাল্ট দেখাবে। এতে আপনার সার্চরেজাল্ট অনেক কমে আসবে। ফলে সঠিক জিনিস খুঁজে পেতে সুবিধা হবে।
✬গুগল সার্চ বক্সে কোন কীওয়ার্ড লিখেI’m Feeling Lucky বাটনে কিক করলে গুগল আপনাকে কোনসার্চ রেজাল্ট প্রদর্শন না করে প্রাপ্ত রেজাল্টের প্রথম সাইটে সরাসরি আপনাকে নিয়ে যাবে।
✬ক্যালকুলেটর হিসেবে যে কোন একটি হিসাবযেমন ২০০+৫০০= দিলেই গুগল ক্যালকুলেটর হাজির হবে। তবে এক্ষেত্রে ব্যবহার করতে হবে ইংরেজিহরফ।
✬অভিধান হিসেবে গুগলকে একটি সমৃদ্ধ অভিধানহিসেবে ব্যবহার করা যায়। এজন্য প্রয়োজনীয় শব্দের পূর্বে “define:” শব্দটি লিখলেই চলে।
যেমন:define:philosophy .
✬(-) ব্যাবহার করে আপনি একটি শব্দ বাশব্দগুচ্ছ অপসারণ করতে পারবেন । যেমন - আপনি যদি সোশ্যাল মিডিয়াগুলোর রেজাল্ট লিষ্টেফেসবুক বাদে অন্যগুলোর দেখতে চান তাহলে
এইভাবে লিখুনঃ Socialmedia – Facebook
অনুসন্ধান থেকে একটি সাইট অপসারণ করতেচান আপনার সার্চরেজাল্ট থেকে তাহলে গুগলে লিখুন এইভাবে-
Social Networking
site:wikipedia.org
✬কোন একটি নির্দিষ্ট ওয়েব সাইটের লিংককোথায়কোথায় আছে তা গুগল সার্চ থেকে খুব সহজেই জেনে নেয়া সম্ভব। কোন ওয়েব সাইটের লিংক কোথায়কোথায় আছে তা জানার জন্য গুগল সার্চে Link অপারেটরটি ব্যবহার করতে হবে। ধরা যাক,bdnews এর লিংক কোথায় কোথায় আছে তা আমরা জানতে চাই। তাহলে গুগল সার্চে গিয়ে link:forum.bdnews.com লিখে সার্চ দিতে হবে। যে রেজাল্ট আসবে সেইসব সাইটেরকোন এক জায়গায় bdnews এর লিংক দেওয়া আছে।
✬সমার্থক শব্দ শব্দের সমার্থক খুঁজতেওগুগলের জুড়ি নেই। শব্দটির আগে টিল্ড চিহ্ন (~) লিখুন।
 যেমন ~fast food
✬ইউনিট কনভারশন :
উচ্চতা, ওজন এবং আয়তন ইত্যাদিরাশির এককের রূপান্তর করতে গুগল ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য সার্চ বক্সে কাঙ্ক্ষিত রূপান্তরলিখুন। যে
যেমন: kg in pound,inch in km
✬কারেন্সি কনভারশন :
 গুগলকে খুব সহজেই বিভিন্ন দেশের মুদ্রার তুলনা করাযেতে পারে। অর্থাৎ একে কারেন্সি করভার্টার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। এজন্য সার্চবারেপ্রয়োজনীয় মুদ্রা লিখে সার্চ দিলেই হবে।
যেমন: USD in BDT
✬স্থানীয় সময় নির্দিষ্ট স্থানের নামেরআগে “time” শব্দটি লিখুন।
যেমন: time Dhaka স্থানীয়আবহাওয়া শহর বা রাজ্যের নামের আগে “weather” শব্দটি লিখুন।
যেমন: weather Dhaka

✬সূর্যদয় ও সূর্যাস্তঃ Sunrise বাSunset শব্দের সাথে প্রসিদ্ধ শহরের নাম লিখে সার্চ দিলে ঐ শহরের সূর্যদয় ও সূর্যাস্তেরসময় জানা যাবে। তবে যু্ক্তরাষ্ট্রের ক্ষেত্রে জিপ-কোর্ডই যথেষ্ট।
যেমন, sunset:dhaka

✬ভাষান্তর সার্চ:- Translate লিখে কোনশব্দ। যেমনঃ translate portakal লিখে সার্চ দিলে সবচেয়ে কাছের ম্যাচ করা শব্দটি গুগল(তুর্কী ভাষায় কমলা) ভাষান্তর করে দেবে।
✬ফুল ভার্সন সফটওয়্যার সংশ্লিষ্ট সফটওয়্যারেরনাম লিখে একটি স্পেস দিয়ে .94fbr লিখতে হবে।
যেমন :Photoshop.94fbr
✬পিডিএফ ফাইল সংশ্লিষ্ট পিডিএফ ফাইলেরনামলিখে :pdf লিখতে হবে। যেমন: Theory of Realtivity :pdf
✬airlines/flight schedule জানতে নির্দিষ্টairlines এর নাম লিখে একটি স্পেস দিয়ে ফ্লাইট নম্বর দিতে হবে। যেমন :fly dubai456.



www.facebook.com/tanbir.cox
-----------------------
আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপসঃ 

-----------------------
১। site: google.comeducation
আপনি যদি গুগলে এইটা লিকেসার্চ করেন, তাহলে গুগলের ডোমেনে education সম্পর্কিত যত তথ্য আছে সব প্রদর্শিত হবে।আসলে নির্দিষ্ট ডোমেনে তথ্য খোঁজার জন্য এই কমান্ড টি ব্যবহার করতে পারেন ।

২। intitle: educationengineering
গুগলে এইটা লিখলে গুগলসেইসব রেজাল্ট সামনে আনবে, যেইসব সাইটের টাইটেলে education কথাটি আছে এবং টেক্সটেengineering কথাটি আছে।

৩। allintitle:education bangla
এই কথাটি লিখলে, যেইসবসাইটে education শব্দটি আছে এবং তাদের টাইটেলে bangla কথাটি আছে তা সামনে চলে আসবে।

৪। inurl:myitzn apps
গুগল সার্চ এ এইটা লিখলেআপনার সামনে সেইসব সাইট আসবে যাদের url এর মধ্যে myitzn কথাটি আছে, এবং টেক্সটেরapps মধ্যে কথাটি আছে ।

৫। allinurl:myitznapps একই কাজ, আগেরটার মত ।

৬। filetype: pdfengineering
এই টি লিখলে আপনার সামনেসকল pdf এর url আসবে যাদের মধ্যে engineering কথাটি আছে। (আমার মনে হয় যারা নিয়মিতassignment করেন, তাদের জন্য এইটি খুব কাজ দিবে :D)

৭। link:http://www.google.com
এইটি লিখলে আপনার সামনেসেইসব রেজাল্ট আসবে যাদের সাথে গুগলের লিংক করা আছে।

৮। +education
এইটি আপনার সামনে সেইসবরেজাল্ট আসবে যেইসব সাইটে বেশি করে education কথাটি উল্লেখ আছে।

৯। -education
এইটি আপনার সামনে সেইসবরেজাল্ট আনবে যাদের মধ্যে education কথাটি উল্লেখ নেই।

১০।“Beautiful Bangladesh ”
এইরকম দুই পাশে কমার মধ্যেযদি আপনি কোন শব্দ গুচ্ছ লিখে সার্চ দেন, তাহলে Beautiful Bangladesh সম্পর্কিত শব্দগুলো যেইসব সাইটে হাইলাইট করা আছে সেই গুলো সামনে আসবে। (আমার মনে হয়, যারাassignment করে তাদের এইটাও কাজে আসবে)।
www.facebook.com/tanbir.cox


✬ওয়েবসাইট বিষয়ক তথ্য অনুসন্ধান :
------------------------------------
গুগল সার্চে info: ট্যাগব্যবহার করে একটি নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের একাধিক তথ্য পাওয়া যায়। যেমন ওয়েবসাইটের ব্যাকলিঙ্ক,ওয়েবসাইটের ক্যাশ, ওয়েবসাইটটি গুগলের ইনডেক্সে অন্তর্ভুক্ত আছে কিনা ইত্যাদি। সার্চবারে যেভাবে লিখবেন: info:আপনার ডোমেইন। উদাহরণ: info:bartavubon.com .
✬ব্লক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন খুব সহজেই!আপনি কি এমন একটি সাইটে প্রবেশ করতে চান, যেটা আপনার কর্পোরেট ফায়ারওয়াল অথবা আপনারদেশে নিষিদ্ধ? এক্ষেত্রে গুগল আপনাকে সাহায্য করতে পারে। এই ভাবে একবার চেষ্টা করেদেখুন। সার্চ বারে যেভাবে লিখবেন: cache:আপনার ডোমেইন। উদাহরণ: cache:bartabd.com
✬টেলিফোন নম্বর সার্চঃ
-------------------------
যদিও আমাদের জন্য খুব একটাউপকারী নয় তবুও আপনি যদি যুক্তরাষ্ট্রের কোন ব্যাক্তির টেলিফোন নম্বর পেতে চান, তাহলেতার নাম ও ষ্টেট লিখে সার্চ দিতে পারেন। যেমন আপনি যদি Tom Jones:FL লিখে সার্চ দেন,তাহল ফ্লোরিড ষ্টেটের Tom Jones নাম ব্যাক্তির টেলিফোন নম্বরগুলো আপনাকে দেখাবে। এইসার্চকে আরেকটু নিদিষ্ট করার জন্য আপনি rphonebook:অথবা bphonebook: লিখে সার্চ দিতেপারেন। rphonebook: Tom Jones, FL আপনাকে Tom Jones নামক ব্যাক্তির বাসার আরbphonebook: Tom Jones,FL আপনাকে তার বিজনেস ফোন নম্বর সার্চ করে বের করবে।
✬নির্দিষ্ট কোন ওয়েবসাইটের শুধু ছবিগুলোদেখা: ইন্টারনেটে ছবি সার্চ করার জন্য গুগলের images.google.com বেশ ভালো ও শক্তিশালী একটি সার্চ ইঞ্জিন। যেকোনকী- ওয়ার্ড লিখে এখানে সার্চ করলেই মুহূর্তের মধ্যে ঠিক সেই বিষয়ের অসংখ্য ছবি এসেযাবে। কিন্তু সেই ছবিগুলো আসে বিশ্বের বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে পেজ র্যাংকিং অনুযায়ী।এখন আপনার হয়তো কখনও সারা বিশ্বের বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে খোঁজার পরিবর্তে শুধুমাত্রনির্দিষ্ট কোন সাইটের ছবি খোঁজার প্রয়োজন। এক্ষেত্রে আপনি image.google.com এর site অপারেটরটি ব্যবহার করতে পারেন। ধরি, বিবিসিওয়েব সাইট থেকে লেডী ডায়নার ছবি খুঁজতে চাচ্ছেন। সেক্ষেত্রে আপনি যদি image.google.com এ গিয়ে site: bbc.co.uk diana লিখে সার্চ করেন, তাহলেই কাঙ্খিত ফলাফল পেয়েযাবেন। এই পদ্ধতিতে কোন নির্দিষ্ট ছবি খোঁজার পাশাপাশি আপনি ইচ্ছে করলে যে কোন সাইটেরসবগুলো ছবিও দেখতে পারেন। যেমন আপনি যদি এখানে শুধুমাত্র site:bbc.co.uk লিখে সার্চ দেন, তাহলে বিবিসি এর সবগুলো ছবি সার্চরেজাল্ট হিসেবে প্রদর্শিত হবে। যদি আপনি কোন সাইট “ভিজুয়্যালি” ব্রাউজ করতে চান তাহলে এই বিশেষ পদ্ধতিটা আপনার কাজে লাগতে পারে । এছাড়াকোন নির্দিষ্ট সাইটের শতশত লেখার মধ্য থেকে একটি প্রয়োজনীয় লেখা পড়ে পড়ে খুঁজে বেরকরার চেয়ে ছবি দেখে খুঁজে বের করা অনেক সহজ। সেক্ষেত্রে আপনি গুগল ইমেজে প্রদর্শিতসাইটের সবগুলো ছবি থেকে প্রয়োজনীয় ছবিগুলোর উপর ক্লিক করে সেই ছবি সম্পর্কিত নিবন্ধগুলোপড়ে নিতে পারেন।



ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত
নোটঃ ফেইসবুক থেকে ফ্রি বই ডাউনলোড করতে আমাদের গ্রুপে জয়েন করুন ...।
https://www.facebook.com/groups/tanbir.ebooks
আমার সব সংগ্রহের লিংক
http://www.facebook.com/10152049959232103
▬▬▬▬۩۞۩▬▬▬▬
যারা এই পেইজের প্রত্যেক পোস্ট নিয়মিত আপনার ফেসবুক ওয়ালে দেখতে পাচ্ছেন না ...
তারা কষ্ট আমাকে ফলো করে রাখুন ...অথবা পেইজ নোটিফিকেশন চালু করে রাখুন
তানবীর (জিরো গ্রাভিটি)
www.facebook.com/tanbir.cox
পেইজের লাইক (like) বাটনের উপর মাউসের কার্সর বা পয়েন্টার কয়েক সেকেন্ড রাখলেই ড্রপ ডাউন মেনুতে Get Notificationলেখাটি দেখা যায় , যেখানে ক্লিক করলে আপনারা আমার পোস্টগুলোর নোটিফিকেশন পাবেন...

postheadericon ১০০ বাংলা কৌতুক বা জোকস কালেকশন

(১) বাড়িওয়ালা:- টুলেট সাইনবোর্ড এ লিখে দিলেন যে, ছেলেমেয়ে নেই এমন পরিবারকে ঘড় ভাড়া দেওয়া হবে। ছোট্র ছেলে সাকিব:- এই যে আঙ্কেল, আমি আপনার ঘড় ভাড়া নিতে চাই। আমার কোন ছেলেমেয়ে নাই। আমার সঙ্গে আমার বাবা মা থাকবেন।
(২) ঘটক :- আপনার ছেলের জন্য খুব মিষ্টি একটা মেয়ে পেয়েছি। অভিভাবক :- তাহলে তো ওই মেয়েতে আমাদের হবে না। ঘটক :- কেন হবে না ? অভিভাবক :- আমাদের ছেলের ডায়াবেটিস আছে তো তাই........ 
(৩) রোগী :- ডাক্তার সাব আমার পেটে ব্যাথা। ডাক্তার :- তা আপনার পায়খানা কেমন ? রোগী :- গরিব মানুষের পায়খানা যেমন হয় ডাক্তার সাব - এই ধরুন বাঁশের খুঁটি চাটাইয়ের বেড়া আর সামনে একখানা ছালা টাঙানো।(৪) গাছের নিচে দুজন লোক দাড়িয়ে ছিল। তাদের একজন হিন্দু অন্যজন মুসলমান। হটাৎ সেই গাছের উপর দুটি পাখি কিচর মিচির শুরু করলো। তখন হিন্দু লোকটি মুসলমান লোকটিকে জিজ্ঞাসা করলো বলতো পাখিগুলো কি বলছে ? মুসলমান লোকটি বললো ”আল্লাহ্, রাসুল, খোদা”। হিন্দু লোকটি বললো ”রাম, কৃষ্ণ, রাধা”। মাছ বিক্রেতা যেতে যেতে বললো ”ইলিশ, রুই, ভেদা”। পান বিক্রেতা বললো ”পান, সুপারি, সাদা ”। রসুন বিক্রেতা কড়া গলায় বললো ”রসুন, মরিচ, আদা”। বুদ্ধিমান লোকটি বললো, ”আপনারা সবাই গাধা”।
(৫) এক মাতাল ব্রিজের উপর দিয়ে যাবার সময় নিচে পানিতে চাঁদের প্রতিবিম্ব দেখে থমকে দঁড়ায়- মাতাল :- এই যে ভাই, নিচে ওটা কি? পথচারী :- ক্যান চাঁদ। মাতাল :- কি ?------------ আমি এতো উপড়ে কি করে উঠলাম ????

(৬) ডাক্তার :- যে প্রেসক্রিপশনটা লিখে দিয়েছিলাম তা ঠিকমতো ফলো করছেন তো ? রোগী :- ওই প্রেসক্রিপশনটা ফলো করলে নির্ঘাত মারা যেতাম । ডাক্তার :- মানে ? রোগী :- ঔ প্রেসক্রিপশনটা ছাদ থেকে পড়ে গিয়েছিল যে.............. 
(৭) এক বদ্রলোক তাঁর বন্ধুর চা বৎসর বয়সী ছেলেকে জিজ্ঞাস করছেন---  বাবা তুমি কি পড়? ছেলে :- হাফপ্যান্ট পড়ি। ভদ্রলোক :- না, মানে কোথায় পড়? ছেলে :- কেন আঙ্কেল , নাভির একটু নিচে।

(৮) ছাত্র :- জুন আই কাম ইন স্যার। শিক্ষক :- এই নতুন ইংরেজী কবে আমদানী করলে? ছাত্র :- গত মাসে আপনিইতে ক্লাশে ঢোকার সময় বলেছিলেন। শিক্ষক :- আমি তো বলেছিলাম "মে আই কাম ইন"। ছাত্র :- কিন্তু স্যার মে মাস তো শেষ এখন জুন মাস চলছে। 
(৯) গৃহশিক্ষক ছাত্রীর প্রেমে পড়ে কৌশলে বললেন :- গৃহশিক্ষক :- আচ্ছা তুমি ভয়েচ করতে পারবে? ছাত্রী :- জ্বী স্যার। গৃহশিক্ষক :- আই লাভ ইউ (I love you) কে Active থেকে Passive Voice এ রূপান্তর কর। ছাত্রী :- খুব সোজা স্যার .... I hate you----------
(১০) ১ম বন্ধু :- তোকে গাড়ী থেকে নামিয়ে সর্বস্ব লুট করে ডাতরা পালিয়ে গেল অথচ তুই কিনা চেঁচিয়ে লোকও জড়ো করতে পারিসনি? ২য় বন্ধু :- কোন উপায় ছিলনা বন্ধু। ওরা আমার টাকা পয়সা সহ গায়ের জামা কাপড় স-অব খুলে নিয়েছিল আর পাশেই ছিল লেডিস হোস্টল। বুঝতেই পারছিস।
(১১) ব্যকরণ শিক্ষক :- বলতো টুটুল ধ্বনি কহাকে বলে ? টুটুল :- স্যার এটাতো একদম সহজ প্রশ্ন এ জগতে যার ধন সম্পদ, প্রভাব প্রতিপত্তি বেশি তাকে ধ্বনি বলে।
(১২) শিক্ষক :- বলতো বাচ্চু, ছেলেটি গাছ থেকে পড়ে গিয়ে পা ভেঙেছে এখানে গাছ কোন পদ? বাচ্চু:- বিপদ স্যার। শিক্ষক:- দুর বোকা তোর মাথায় শুধু গোবর আর গোবর । আচ্ছা আবছার তুই বলতো ধান কোথায় ভালো জন্মে? আবছার :- বাচ্চুর মাথায় স্যার।
(১৩) মেয়ে :- আম্মু ছোট খালা মনে হয় মানুষ না! মা :- মানুষ না মানে ! মেয়ে :- না আম্মু আমি নিজ কানে শুনেছি-----------? মা :- কি শুনেছিস? মেয়ে :- আব্বু না খালার নাকে হাত দিয়ে বলছে তুমি একটা পরি।
(১৪) ছোট মেয়ে :- মা জানো, বড় আপা না অন্ধকারেও চোখে দেখতে পারে। মা :- তুই কি করে বুঝলি? ছোট মেয়ে :-কাল রাতে যখন বিদ্যুৎ চলে গেলো, তখনই শিবলী ভাইয়া এলেন, একটু পরেই অন্ধকারে আপা বললেন, এই তুমি সেভ করনি কেন !

postheadericon টাইম ট্রাভেল বা সময় ভ্রমণ কীঃ স্টিফেন হকিংসের

টাইম ট্রাভেল বা সময় ভ্রমণ এর ধারনাঃ
টাইম ট্রাভেলের নাম শুনলেই এই সম্পর্কে একটা ধারণা পাওয়া যায়। এর মানে, টাইম ট্রাভেল হচ্ছে এমন একটা মাধ্যম যা দ্বারা আমরা অতীত ও ভবিষ্যতে যেতে পারি।
 আলবার্ট আইন্সটাইন বলেছেন আলোর গতি সর্বাধিক। সেকেন্ডে ৩০কোটি মিটার। গতিটি অনেক বেশি বলে একে সর্বাধিক ধরা হয়। সকল বিজ্ঞানীরা এর সাথে একমত।
কিন্তু তাই বলে কি এই গতিতে গেলে টাইম ট্রাভেল করা সম্ভব?
 হ্যাঁ। বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং এর মতে সম্ভব। অর্থাৎ তার মতে, আমরা যদি আলোর গতিতে যেতে পারি তবে ভবিষ্যতে এবং অতীতে যখন ইচ্ছা যেতে পারবো।
 কিন্তু, এই মহা বিজ্ঞানীরা যারা টাইম ট্রাভেল বিশ্বাস করে, তারা যদি সময়ের মূল অর্থ জানতো তাহলে, এরা মোটেই এই কথা বলতে পারতনা। সময়ের সঠিক সংজ্ঞা এখনো কোনো বিজ্ঞানী-ই দিতে পারেনি।
 কারণ, সময় বলতে কিছুই নেই। সময় শুধু আমাদের একটা ধারণা যা আমরা শুধু চিন্তা করতে পারে। সময় আবিষ্কারের মূল উদ্দ্যেশ্য হলো আমরা কখন কী কাজ করবো তার একটা নির্দিষ্ট ধারণা পাওয়া। সময় আবিষ্কার হয়েছিল হিসাব-নিকাশ জন্যে।
সময় কবে প্রথম আবিষ্কার হয়েছিলো তার সম্পর্কে আমার কোনো ধারণা নেই।
তবে সময় আবিষ্কারের আগে মানুষ চন্দ্র ও সূর্য দেখে মানুষ ধারণা করে নিত কখন কী কাজ করতে হবে। তাদের কষ্ট কমানোর জন্য তারা সময় আবিষ্কার করেছিলো।
 আমার মতে সময়ের সংজ্ঞা হবে এমনঃ
সময় হচ্ছে আমরা যা দেখি, দেখেছিলাম, দেখব যা করি করেছিলাম, করি , করবো। কিন্তু এই সময়ের কোনো অস্তিত্ত্ব নেই।
 আর যদি সময়ের অস্তিত্ত্ব থাকে তবে বলবোঃ সময়ের গতি-ই সর্বোচ্চ।
কারণ, বর্তমান ধারণা মতে সর্বোচ্চ আলোর গতিকে পরিমাপ করতে হলেও সময়ের প্রতি সেকেন্ডকে একক ধরা হয়। আলো ৩০ কোটি মিটার অতিক্রম করে ১ সেকেন্ডে।
কিন্তু এই ১ সেকেন্ড সময়টাও কিন্তু অনেকক্ষণ।
 আমরা যা দেখি অর্থাৎ বর্তমান আরো তাড়াতাড়ি ঘটে। আর সময়ের গণনাকৃত সর্ব নিন্ম মান হলোঃ  ১ ক্রোনোম সেকেন্ড এটি হলো ১ সেকেন্ডের ১ ট্রিলিওন ও ১ বিলিওন ভাগের এক ভাগ। তার থেকে আরো কম-ও হতে পারে যা অসীম পর্যন্ত যাবে।
 অর্থাৎ আমাদের বর্তমান ঘটে যায় ১ ক্রোনোম সেকেন্ডের ও কম সময়ে।
 অর্থাৎ, আলোর গতি ৩০ কোটি মিটার যেতে অতীত ও বর্তমানকে স্পর্শ করে।
তাঁর মানে ১ সেকেন্ডে আলো যদি সেকেন্ডে ৩০০০০০০০০ মিটার X  ১ ট্রিলিওন ও ১ বিলিওন গতি উৎপন্ন করে বর্তমানের গণনাকৃত সর্বনিম্ন সময়ের মানকে পার করতে পারে তবে টাইম ট্রাভেল করলেও করা যেতে পারে।
 অর্থাৎ আলোর না, সময়ের অস্তিত্ত্ব থাকলে সময়ের গতির মান-ই অধিক হত ।
 ৩০০০০০০০০মিটার সময়ের গণনাকৃত গতির সামনে কিছুই না। সেকেন্ডে ৩০০০০০০০০ মিটার বেগে  গেলে আমরা শুধু সেকেন্ডে ৩০০০০০০০০ মিটার দুরত্ত্বই অতিক্রম করব। সময়ের গতিকে পার করতে হলে এই গতিকে ১ ট্রিলিওন ও ১ বিলিওন দিয়ে গুণ করতে হবে।
 কিন্তু আমরা, মোটামুটিভাবে টাইম ট্রাভেল করছি। কারণ সময়ের গতি আমাদের পৃথিবীকে প্রতি ক্রোনো সেকেন্ডেই ভবিষ্যতে নিয়ে যাচ্ছে। অর্থাৎ আমরা সকলে সাধারণ টাইম ট্রাভেল করছি। 
আর আমরা আমাদের ভবিষ্যতের অতীতে আছি।এটি হলো সাধারণ সময় ভ্রমণ তত্ত্ব (General theory of Time travel)

 বিস্তারিত বুঝতে নিচের ইউটিঊব ভিড়িও গুলো দেখুন
https://www.youtube.com/watch?v=au5i1Bw725o

https://www.youtube.com/watch?v=C3-aiIlJfxU

https://www.youtube.com/watch?v=_iby0vsD9C4

 https://www.youtube.com/results?search_query=time+travel

সময় পরিভ্রমণ বা Time Travel! বিস্তারিত ব্যাখ্যাঃ 

সময় পরিভ্রমণ শুনলেই আমরা কল্পবিজ্ঞানের নানা গল্পের মাঝে হারিয়ে যাই! যেখানে কোন বিজ্ঞানী তার নিজের তৈরি টাইম মেশিনে চড়ে চলে যায় সুদূর ভবিষ্যতে, ভবিষ্যৎ থেকে চলে আসে কোন খুনে রোবট, ইত্যাদি ইত্যাদি। মজার বিষয় হচ্ছে শুনতে যতই অবাস্তব বা অবৈজ্ঞানিক মনে হোক না কেন, আধুনিক পদার্থবিজ্ঞানে কিন্তু সময় পরিভ্রমণ বা টাইম ট্রাভেল তাত্ত্বিকভাবে সম্ভব্ একটি ঘটনা, আর এটি কোন যেনতেন ব্যক্তির উক্তি নয়, বর্তমান বিশ্বের সবচাইতে ক্ষমতাধর ও প্রতিভাশালী বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংস স্বয়ং এই সম্ভাবনার কথা বলেছেন! এবার নিশ্চয়ই আর বিষয়টাকে মজা মনে হবে না, তাই না?
নানান কবি সাহিত্যিক সময়কে নদীর সাথে তুলনা করেছেন! সময় ও নদী দুটোই প্রবাহিত হতে থাকে তার আপন গতিতে, এটি বহু পুরানো এক উক্তি। তবে বিজ্ঞানের দৃষ্টিভঙ্গিতেও সময় কিন্তু একটি স্বতঃ প্রবহমান নদীর মতই আচরণ করে। স্টিফেন হকিংস বলেন, “এটি ভিন্ন ভিন্ন জায়গায়, ভিন্ন ভিন্ন গতিতে প্রবাহিত হয়(ঠিক যেমন সমতল ভূমিতে ধীরে আর পাহাড়ি ঢাল বেয়ে দ্রুত বয়ে চলে নদী), আর এটাই হল ভবিষ্যতে গমনের একমাত্র চাবিকাঠি।“ এটি এমন একটি চিন্তা যা আজ থেকে ১০০ বছর আগে খোদ আইনস্টাইন উল্লেখ করে গিয়েছিলেন।

প্রয়োজনীয় সব বাংলা 🕮ই-বুক

প্রয়োজনীয় সব বাংলা 🕮ই-বুক বা বই, 💻সফটওয়্যার ও 🎬টিটোরিয়াল কালেকশ সংগ্রহ করতে!
আপনারা সামান্য একটু সময় ব্যয় করে ,শুধু এক বার নিচের লিংকে ক্লিক করে এই কালেকশ গুলোর মধ্যে অবস্থিত বই ও সফটওয়্যার এর নাম সমূহের উপর চোখ বুলিয়ে 👓👀 নিন।”তাহলেই বুঝে যবেন কেন এই ফাইল গুলো আপনার কালেকশনে রাখা দরকার! আপনার আজকের এই ব্যয়কৃত সামান্য সময় ভবিষ্যতে আপনার অনেক কষ্ট লাঘব করবে ও আপনার অনেকে সময় বাঁচিয়ে দিবে।
বিশ্বাস করুন আর নাই করুনঃ-“বিভিন্ন ক্যাটাগরির এই কালেকশ গুলোর মধ্যে দেওয়া বাংলা ও ইংলিশ বই, সফটওয়্যার ও টিউটোরিয়াল এর কালেকশন দেখে আপনি হতবাক হয়ে যাবেন !”
আপনি যদি বর্তমানে কম্পিউটার ব্যবহার করেন ও ভবিষ্যতেও কম্পিউটার সাথে যুক্ত থাকবেন তাহলে এই ডিভিডি গুলো আপনার অবশ্যই আপনার কালেকশনে রাখা দরকার !
মোট কথা আপনাদের কম্পিউটারের বিভিন্ন সমস্যার চিরস্থায়ী সমাধান ও কম্পিউটারের জন্য প্রয়োজনীয় সব বই, সফটওয়্যার ও টিউটোরিয়াল এর সার্বিক সাপোর্ট দিতে আমার খুব কার্যকর একটা উদ্যোগ হচ্ছে এই ডিভিডি প্যাকেজ গুলো।আশা করি এই কালেকশন গুলো শিক্ষার্থীদের সকল জ্ঞানের চাহিদা পূরন করবে…!
আমার আসল উদ্দেশ্য হল, কম্পিউটার ও মোবাইল এইডেড লার্নিং ডিভিডি কার্যক্রম এর মাধ্যমে সফটওয়্যার, টিটোরিয়াল ও এইচডি কালার পিকচার নির্ভর ই-বু বা বইয়ের সহযোগিতায় শিক্ষাগ্রহন প্রক্রিয়াকে খুব সহজ ও আনন্দদায়ক করা।
এবং সকল স্টুডেন্ট ও টিচারকে কম্পিউটার ও মোবাইল প্রযুক্তির সম্পৃক্তকরণ এবং সকল শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের প্রযুক্তিবান্ধব করা এবং একটা বিষয় ক্লিয়ার করে বুঝিয়ে দেওয়া যে প্রযুক্তি শিক্ষাকে আনন্দদায়ক করে এবং জ্ঞান অর্জনের প্রতি আকর্ষণ বৃদ্ধি করে…
🎯 কালেকশ সম্পর্কে বিস্তারিত 👀জানতেঃ নিচের লিংকে 👆ক্লিক করুন
www.facebook.com/tanbir.ebooks/posts/777596339006593

এখানে👆 ক্লিক করুন

🎯 সুন্দর ভাবে বুঝার জন্য নিচের লিঙ্ক থেকে ই-বুক্টি ডাউনলোড করে নিন...
📥 ডাউনলোড 👆 লিংকঃ এখানে👆ক্লিক

আপডেট পেতে

আপডেট ই-বুক

Google+

Email পেতেঃ

মন্তব্য দিন

আমার সম্পর্কে !

আমার ফোটো
Tanbir ebooks
                 Web site :

ফ্রী বাংলা ই-বুক ও ওয়েব সাইট লিঙ্ক
জিরো গ্রাভিটি | Techtunes | টেকটিউনস
ফেসবুক পেজঃ-- 

https://www.facebook.com/tanbir.cox

বেঁচে আমি থাকবোই আমার আপন ইচ্ছায়...,
অন্তত উত্তম এক কালের প্রতীক্ষায়.........
তা কারো গোলামী করে নয়...।
নিজের যোগ্যতায়...
+8801738359555

আমার সম্পূর্ণ প্রোফাইল দেখুন